স্পোর্টস

আবারও ইমার্জিং এশিয়া কাপের আয়োজক বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক: লম্বা বিরতি দিয়ে ২০১৭ সালে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপের আয়োজন করেছিল বাংলাদেশে। গত বছর এ টুর্নামেন্ট যৌথভাবে আয়োজন করে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। তবে চলতি বছর আবারও জমজমাট এ লড়াই দেখা যাবে বাংলাদেশে।
এ বছরের ১২ থেকে ২৫ নভেম্বর মাঠে গড়াবে আট দেশের অংশগ্রহণে ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপে। ভেন্যু এখনও চূড়ান্ত করেনি বিসিবি। আগেরবার গ্রুপপর্ব হয়েছিল কক্সবাজারে। দুটি সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচ হয় চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।
মূলত বিসিবির হাই-পারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের ক্যাম্পে থাকা খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে ইমার্জিং কাপের জন্য বাংলাদেশ দল গড়া হবে। গত শনিবার থেকে মিরপুরে শুরু হওয়া ক্যাম্পে যে ২৩ জন ক্রিকেটারকে রাখা হয়েছে, তাদের সবার বয়স ২৩ এর মধ্যে।
ইমার্জিং এশিয়া কাপে মূলত ২৩ বছর বয়সী ক্রিকেটাররা অংশ নিতে পারেন। যদিও স্কোয়াডে চারজন ক্রিকেটার রাখা যাবে যাদের বয়স ২৩ পেরিয়েছে। একাদশে খেলানো যাবে তিনজন। হতে পারেন জাতীয় দলের ক্রিকেটারও। এ ব্যাপারে বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ম্যানেজার কায়সার আহমেদ বলেন, ‘এইচপি ক্যাম্প নিয়ে আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে যারা সুযোগ পেয়েছেন তাদের টেকনিকে যে সমস্যা আছে বিশেষজ্ঞ কোচদের অধীনে সেটি শুধরে নেওয়া, সামনে যে ক্রিকেট মৌসুম আছে সেটির জন্য তৈরি করা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হোক, ঘরোয়া ক্রিকেট হোক, যত খেলা আছে তার জন্য প্রস্তুত করা। এরই ধারাবাহিকতায় সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আমাদের অনুশীলন পর্ব চলবে।
আসছে আগস্টে দুটি চার দিনের ম্যাচ ও তিনটি ওয়ানডে খেলার জন্য শ্রীলঙ্কা সফরের পরিকল্পনা আছে এইচপি দলের। মূল্য উদ্দেশ্যে ইমার্জিং এশিয়া কাপে ভালো পারফর্ম করা। এ নিয়ে কায়সার আহমেদ বলেন, ‘এবার আরেকটা লক্ষ্য আছে সেটি হলো আগামী ১২-২৫ নভেম্বর আমাদের দেশে ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপ হবে। ওটার জন্য দল তৈরি করা এইচপির মাধ্যমে। আরেকটা ব্যাপার হচ্ছে এইচপি স্কোয়াড নিয়ে আগস্টে আমাদের শ্রীলঙ্কা সফরের পরিকল্পনা আছে। সেখানকার সার্বিক অবস্থা যদি ভালো হয়। আমাদের বোর্ড যদি পর্যবেক্ষণের পর মনে করে নিরাপদ। যদি আশ্বস্ত হওয়া যায় তখন বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে। আগস্টে দুটি চার দিনের ম্যাচ ও তিনটি ওয়ানডে খেলার জন্য যাওয়ার পরিকল্পনা আমাদের ছিল এবং আছে।’
ইমার্জিং কাপ হবে ৫০ ওভারের। অংশ নেবে আট দল। যাদের মধ্যে থাকবে এশিয়ার চার টেস্ট খেলুড়ে দল বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা।

সর্বশেষ..



/* ]]> */