আমরা নেটওয়ার্কের আইপিও লটারি অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: তালিকাভুক্তির অপেক্ষায় থাকা কোম্পানি আমরা নেটওয়ার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ ফরহাদ আহমেদ বলেছেন, সবার সহযোগিতা পেলে আমাদের প্রতিষ্ঠানটি পুঁজিবাজারে একটি ভালো কোম্পানিতে পরিণত হবে। আরও ভালো সেবা দিতে পারবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে প্রতিষ্ঠানটির আইপিও লটারি অনুষ্ঠিত হওয়ার সময় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান সৈয়দ ফারুক আহমেদ, অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) মো. এনামুল হকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা শুধু ব্যবসা করার জন্য প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলিনি। এর পাশাপাশি সাধারণ মানুষের সঙ্গে থেকে সামাজিক উন্নয়নেও অবদান রাখতে পারবে। এর অংশ হিসেবে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য সামাজিক কর্মকাণ্ডে অবদান রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছি আমরা। সবার সহযোগিতা পেলে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার পথ আরও সুগম হবে। তাই আমরা সবার সহযোগিতা চাই।

এর আগে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে অনুমোদন পাওয়া কোম্পানিটির আইপিও আবেদন জমা নেওয়া হয়। প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার মার্কেট লট ১০০ শেয়ার নিয়ে। প্রতি আবেদনের সঙ্গে জমা দিতে হয়েছে ৩৫০০ টাকা।

কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, আইপিও’র মাধ্যমে উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানির বিএমআরই (আধুনিকায়ন), ডেটা সেন্টার প্রতিষ্ঠা, দেশের বিভিন্ন স্থানে ওয়াইফাই হটস্পট প্রতিষ্ঠা করা, আইপিও’র কাজ ও ঋণ পরিশোধ করা হবে।

তথ্যমতে, কোম্পানিটি বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে এক কোটি ৫০ লাখ ৪১ হাজার ২০৯টি শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে ৫৬ কোটি ২৫ লাখ সাত টাকা তুলেছে। এ শেয়ারের মধ্যে ৬০ লাখ ২৬ হাজার ৭৮৬টি শেয়ার পাবেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা; যা মোট শেয়ারের ৪০ শতাংশ। ৩৫ টাকা দরে এ শেয়ার বিক্রি হবে। এর মাধ্যমে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ২১ কোটি ৯ লাখ ৩৭ হাজার ৫১০ টাকা সংগ্রহ করা হবে। বাকি ৬০ শতাংশ বা ৯০ লাখ ১৪ হাজার ৪২৩টি শেয়ার পাবেন মিউচুয়ালসহ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। ৩৯ টাকা দরে এ শেয়ার বিক্রি হবে। এর মাধ্যমে সংগ্রহ করা হবে ৩৫ কোটি ১৫ লাখ ৬২ হাজার ৪৯৭ টাকা।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত বিবরণী অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) তিন টাকা ১৬ পয়সা; শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য ২১ টাকা ৯৮ পয়সা। আর পাঁচ বছরের ইপিএসের গড় করলে হয় দুই টাকা ৫২ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৬ সমাপ্ত নিরীক্ষিত হিসাব (ছয় মাসের) অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস এক টাকা ৬৮ পয়সা; আর এনএভি ২৩ টাকা ৬৬ পয়সা।

কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছে লংকাবাংলা ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড। আর রেজিস্টার টু দ্য ইস্যুর দায়িত্বে রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া আমরা নেটওয়ার্কের আইপিও লটারি অনুষ্ঠিত হয়। লটারি পরিচালনা করে বুয়েটের একটি প্রতিনিধিদল।