স্পোর্টস

‘আমাদের সামর্থ্য আছে স্কিলেরও কমতি নেই’

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপ ২০১৯। যতদ্রুত সম্ভব সব স্মৃতি ভুলে যেতে চাইবে আফগানিস্তান। টুর্নামেন্টে সব ম্যাচে জয়হীন থেকে পয়েন্ট টেবিলের তলানি থেকে শেষ করেছে এশিয়ার দলটি। সেই রেশ ধরে বিশ্বকাপে দায়িত্বে থাকা অধিনায়ককেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। আফগানদের তিনি ফরম্যাটের অধিনায়ক করা হয়েছে দলের সবচেয়ে বড় তারকা রশিদ খানকে। সাবেক অধিনায়কের মতো তিনিও এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। সেই সঙ্গে ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আফগানিস্তান কত বড় দল তা প্রমাণ করতে চান তিনি। বর্তমান দলের এ অধিনায়ক মনে করেন, অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। এছাড়া দলের সবারই সামর্থ্য আছে বলে মানছেন রশিদ, ‘আমাদের এখন শুধু ক্রমান্বয়ে উন্নতি করতে হবে। অতীতের ভুল-ত্রুটি থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আমাদের সামর্থ্য আছে, স্কিলেরও কমতি নেই। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে আমরা ভালো দল। আমাদের সেরা প্রস্তুতিটা নিতে হবে।’ তবে নিজেদের উন্নতির জন্য বড় দলগুলোর সঙ্গে অধিক ম্যাচ খেলার ইচ্ছা পোষণ করেছেন আফগান দলপতি, ‘আমি মনে করি বড় দলগুলোর বিপক্ষে যত বেশি খেলব, আমাদের ততই উন্নতি হবে। তাদের বিপক্ষে যত খেলব, সিরিজে মুখোমুখি হব, আমাদের ক্রিকেট তত উন্নত হবে।’ এবারের বিশ্বকাপের ব্যর্থতার পর আগামী বিশ্বকাপ (২০২৩) নিয়ে অবশ্য রশিদ এখনই ভাবতে রাজি নন। তার মাথায় এখন শুধুই অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠেয় আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। নিজের দলের সামর্থ্যরে কথা জানান দিয়ে তিনি প্রমাণ করাতে চান দল হিসেবে আফগানিস্তান কত ভালো, ‘২০২৩ সালের বিশ্বকাপ অনেক দূরে। এখন আমাদের মনোযোগ ও লক্ষ্য অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দিকে। আমি মনে করি আমরা দেখাতে পারব যে আমরা কত ভালো দল। দেখাতে পারব আমরা কতটুকু পারি। গত বিশ্বকাপের সঙ্গে তুলনা করলে আমরা আমাদের সেরা দলটা পাব আশা করি।’

 

সর্বশেষ..



/* ]]> */