বিশ্ব বাণিজ্য

আরেকটি বিদেশি তেলবাহী ট্যাংকার আটক করেছে ইরান

শেয়ার বিজ ডেস্ক: তেলপাচারের অভিযোগে আরেকটি বিদেশি তেলবাহী ট্যাংকার আটক করেছে ইরান। একই সঙ্গে আটক করা হয়েছে ট্যাংকারটির সাত নাবিককে। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, কোনো একটি আরব দেশে তেল পাচারের চেষ্টা করছিল ট্যাংকারটি। তবে আরবের কোন দেশে তেল পাচার করা হচ্ছিল, সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। গত মাসে ব্রিটেনের আরেকটি ট্যাংকার আটক করে ইরানের বিপ্লবী গার্ডের সদস্যরা। খবর: রয়টার্স।
ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা চলার মধ্যে জুলাইতে উপসাগরীয় এলাকা থেকে ব্রিটিশ পতাকাবাহী ট্যাংকার স্টেনা ইমপেরো আটক করে ইরান। ওই সময়ে আন্তর্জাতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ এ জাহাজ পরিবহন রুটে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। প্রাথমিকভাবে তেহরানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় ইরানের একটি মাছ ধরা নৌকার সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর ব্রিটিশ ট্যাংকারটি আটক করা হয়। পরে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, আটকের সময় তাদের জাহাজটি ওমানের জলসীমায় ছিল।
তবে নতুন করে আটক করা ট্যাংকারটি কোন দেশের নামে নিবন্ধিত তা জানা যায়নি। ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, ইরানের বিপ্লবী গার্ডের নৌ সদস্যরা পারস্য উপসাগর থেকে বিদেশি একটি জাহাজ আটক করেছে। ওই ট্যাংকারটিতে সাত লাখ লিটার তেল পরিবহন করা হচ্ছিল বলে জানানো হয়েছে। এসব তেল কোনো একটি আরব দেশে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে বলা হয়েছে ওই খবরে। ইরানের বিপ্লবী গার্ডের কমান্ডার রামিজান জিরাহি জানিয়েছেন, ট্যাংকারে থাকা সাত নাবিককে আটক করা হয়েছে। তারা বিভিন্ন দেশের নাগরিক।
গত ৪ জুলাই জিব্রাল্টারের জলসীমা থেকে সিরিয়াগামী ইরানের তেলবাহী ট্যাংকার গ্রেস-১ ব্রিটিশ নৌবাহিনী জব্দ করার পর লন্ডনের সঙ্গে তেহরানের টানাপড়েন শুরু হয়। এরপর ১৯ জুলাই ইরান পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে হরমুজ প্রণালির কাছ থেকে ব্রিটেনের ট্যাংকার জব্দ করে। উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে হরমুজ প্রণালি দিয়ে চলাচলরত জাহাজগুলোকে নিরাপত্তা দিতে নৌবাহিনীকে নির্দেশ দেয় ব্রিটেন। এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি পারস্য উপসাগরে পৌঁছেছে ব্রিটেনের পাঠানো দ্বিতীয় যুদ্ধজাহাজ এইচএমএস ডানকান। এর আগে থেকে পারস্য উপসাগরে মোতায়েন ব্রিটিশ যুদ্ধজাহাজ মন্ট্রোজের সঙ্গে যোগ দিয়েছে এটি। এ কারণে এ অঞ্চলে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
হরমুজ প্রণালি বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি সমুদ্রপথ। ৩৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এ প্রণালিটি ওমান উপসাগর ও পারস্য উপসাগরকে সংযুক্ত করেছে। প্রণালির একদিকে আছে ইরান, অন্যদিকে আরব দেশগুলো। হরমুজ প্রণালির সবচেয়ে সংকীর্ণ যে অংশ, সেখানে ইরান ও ওমানের দূরত্ব মাত্র ৩৩ কিলোমিটার। মধ্যপ্রাচ্য থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তেল রফতানি করা হয় এ প্রণালির মাধ্যমে।

সর্বশেষ..