বিশ্ব সংবাদ

ইউরেনিয়ামের মজুদ আরও বাড়ানোর ঘোষণা ইরানের

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ছয় শক্তিধর দেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তিতে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের জন্য তেহরানকে বেঁধে দেওয়া মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে ইরান। পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের জন্য ইউরোপকে তেহরানের দেওয়া ৬০ দিনের আলটিমেটাম শেষ হওয়ার পর এ ঘোষণা এলো। খবর বিবিসি।
গত রোববার ইরানের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকশি বলেন, তার দেশ এখনও চুক্তিটিকে বাঁচিয়ে রাখতে চায়। তার আক্ষেপ, ইউরোপীয় দেশগুলো তাদের নিজেদের প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে। চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা থেকে ইরানকে রক্ষায় যথাযথ পদক্ষেপ না নিলে প্রতি ৬০ দিন পর পর নিজেদের প্রতিশ্রুতি থেকে একটু একটু করে সরে আসার হুশিয়ারি দিয়েছেন আরাকশি।
২০১৫ সালের জুনে ভিয়েনায় ইরানের সঙ্গে নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ সদস্য রাষ্ট্র-যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন (পি-ফাইভ) ও জার্মানি (ওয়ান) পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষর করে। চুক্তি অনুযায়ী, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি না করার প্রতিশ্রুতি দেয় তেহরান। পূর্বসূরি ওবামা আমলে স্বাক্ষরিত এ চুক্তিকে ‘ক্ষয়িষ্ণু ও পচনশীল’ আখ্যা দিয়ে গত বছরের মে মাসে তা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর নভেম্বরে তেহরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করা হয়। অন্যদিকে ইউরোপীয় দেশগুলো এ সমঝোতা বাস্তবায়নের কথা মুখে বললেও কার্যত তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করে আসছে ইরান। যুক্তরাষ্ট্রের বেরিয়ে যাওয়া এবং নিজেদের প্রতিশ্রুতি পালনে ইউরোপীয় দেশগুলোর ব্যর্থতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে এ বছরের মে মাসে দেশটি চুক্তি থেকে আংশিক সরে আসার ঘোষণা দেয়। ইউরোপীয় ইউনিয়নকে সমঝোতা বাস্তবায়নের জন্য দুই মাসের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়।
পরমাণু সমঝোতা রক্ষা করার লক্ষ্যে ইরানের পক্ষ থেকে ইউরোপকে দেওয়া চূড়ান্ত সময়সীমা শেষ হয়েছে গত শনিবার রাতে। আর এর একদিনের মাথায় গতকাল তেহরান এ সমঝোতায় নিজেদের দেওয়া আরও কিছু প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন স্থগিত রাখার ঘোষণা দিয়েছে।
এক সংবাদ সম্মেলনে ইরানের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকশি বলেন, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের মাত্রা তিন দশমিক ৬৭ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে পাঁচ শতাংশ করবে তার দেশ। তিনি আরও বলেন, কূটনৈতিকভাবে ইরান যথেষ্ট সময় দিয়েছে। তবে ইউরোপীয় দেশগুলোর সরকার তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে।

 

সর্বশেষ..