উভয় বাজারে লেনদেন বেড়েছে ২৪০ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: উভয় বাজারে গতকাল সূচক বাজার মূলধনের রেকর্ড উচ্চতায় লেনদেন হয়। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সব সূচকের পাশাপাশি বাজার মূলধনের নতুন রেকর্ড হয়। ডিএসইতে এদিন লেনদেন বেড়েছে প্রায় ২২১ কোটি টাকা। সিএসইতে লেনদেন বাড়ে ১৯ কোটি টাকার বেশি। অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বাজার মূলধন ও সিএসপিআই ও সিএসই৫০ সূচক নতুন উচ্চতায় উঠে যায়। সিএসইতেও সব সূচক ইতিবাচক হওয়ার পাশাপাশি লেনদেন বেড়েছে। শুরু থেকেই ডিএসইর সূচক ঊর্ধ্বমুখী ছিল। সামান্য ওঠানামা করে ৩৫ পয়েন্ট বৃদ্ধি দিয়ে লেনদেন শেষ হয়।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, এদিন ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৩৫ দশমিক ১৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৫৭ শতাংশ বেড়ে ছয় হাজার ১৮৪ দশমিক ৫৭ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ছয় দশমিক ৬৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৮ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩৭২ দশমিক ২৯ পয়েন্টে আর ডিএস৩০ সূচক ১১ দশমিক ৪১ পয়েন্ট বা দশমিক ৫১ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ২১২ দশমিক ১৪ পয়েন্টে অবস্থান করে, যা সূচকগুলোর সর্বোচ্চ অবস্থান। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন চার লাখ ১২ হাজার ৪০৬ কোটি ৯৫ লাখ ৩৪ হাজার ৭১ টাকা হয়, যা বাজার মূলধনের সর্বোচ্চ রেকর্ড।

ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় এক হাজার ৪২৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় এক হাজার ২০৩ কোটি ৪৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ২২০ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। এদিন ৪৪ কোটি ৬৮ লাখ ২৪ হাজার ৭১১টি শেয়ার এক লাখ ৬২ হাজার ১১৫ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৩১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১২৫টির, কমেছে ১৭৪টির, অপরিবর্তিত ছিল ৩২টির দর।

টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে ছিল লংকাবাংলা ফাইন্যান্স। ৬৮ কোটি ৮৯ লাখ টাকায় এক কোটি ছয় লাখ চার হাজার ৮৭৩টি শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির  দর ২০ পয়সা কমেছে। এর পরের অবস্থানগুলোয় ছিল আল আরাফাহ্ ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মা, জিপি, এনবিএল, আইএফআইসি। সবচেয়ে বেশি সংখ্যক শেয়ার লেনদেন হয় ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংকের। কোম্পানিটির দুই কোটি ২২ লাখ ৪৯ হাজার ৪০১টি শেয়ার ৩৫ কোটি ৯৭ লাখ টাকায় লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোতে ছিল এনবিএল, আল আরাফা ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, আইএফআইসি, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, প্রাইম ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক ও ফাস ফিন্যান্স।

৯ দশমিক ৮৫ শতাংশ দর বেড়েছে রূপালী ব্যাংকের। আট দশমিক ১৪ শতাংশ বেড়েছে মুন্নু সিরামিকের। এরপরে সাত দশমিক ৪৬ শতাংশ বাড়ে বিজিআইসির। প্রভাতি ইন্স্যুরেন্স ছয় দশমিক ৯১ শতাংশ ও স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক বেড়েছে ছয় দশমিক ৬১ শতাংশ। অন্যদিকে সাত দশমিক ৯৩ শতাংশ দর কমেছে লিগ্যাসি ফুটওয়্যারের। মুন্নু স্টাফলার কমেছে পাঁচ দশমিক ১৪ শতাংশ, কোহিনুর ক্যামিকেল চার দশমিক ৪৯ শতাংশ, এল আলম কোল্ড রোল্ড চার দশমিক শূন্য এক শতাংশ ও ফাইন ফুডস তিন দশমিক ৯৪ শতাংশ কমেছে।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৮৩ দশমিক ১৪ পয়েন্ট বেড়ে ১১ হাজার ৫৯৫ পয়েন্টে ও সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৩৮ দশমিক ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ১৯ হাজার ১৮২ পয়েন্টে অবস্থান করে, যা সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান। গতকাল দিনজুড়ে ২৬৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে ১১০টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৩৬টির। অপরিবর্তিত ছিল ১৯টির দর।

এদিন ৭৭ কোটি ৮৬ লাখ ৭৬ হাজার ৪৮৪টি শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫৮ কোটি ৭১ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বাড়ে ১৯ কোটি ১৫ লাখ টাকা। সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল স্কয়ার ফার্মা। কোম্পানিটির চার কোটি ২২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপর পূবালী ব্যাংক তিন কোটি ৭২ লাখ টাকার, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক তিন কোটি ২০ লাখ, এসআইবিএল তিন কোটি ছয় লাখ, আল আরাফা ব্যাংক দুই কোটি ৯৫ লাখ, তুং হাই দুই কোটি ৮৯ লাখ, গ্রামীণফোন দুই কোটি ৫২ লাখ, প্রাইম ব্যাংক দুই কোটি ৩১ লাখ এবং এনবিএল দুই কোটি ২৫ লাখ এবং প্যারামাউন্ট টেক্সের দুই কোটি ১১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।