উভয় বাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল সূচকের উত্থান দিয়ে লেনদেন শুরু হলেও তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেনি। এক ঘণ্টার মধ্যে বিক্রির চাপ শুরু হলে সূচক নেমে যেতে থাকে। বেলা ২টার পর শেয়ার কেনার চাপ সামান্য বাড়লে ডিএসইএক্স সূচক আগের দিনের চেয়ে মাত্র এক পয়েন্ট ইতিবাচক থেকে লেনদেন শেষ হয়। ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ও ডিএস৩০ সূচকও নেতিবাচক অবস্থানে চলে যায়। ডিএসইর মোট লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কমেছে। সে সঙ্গে কমেছে বেশিরভাগ শেয়ারদর। অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকে ছিল মিশ্র প্রবণতা। বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতন হলেও লেনদেন বেড়েছে।
বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স এক দশমিক শূন্য পাঁচ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য এক শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ৪০৭ পয়েন্টে অবস্থান করে।
ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক পাঁচ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৬ শতাংশ কমে এক হাজার ২৪৫ দশমিক ৫৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। আর ডিএস৩০ সূচক ১১ দশমিক ৯৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৬২ শতাংশ কমে এক হাজার ৮৯৩ দশমিক ৩৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন কমে তিন লাখ ৮৪ হাজার ৫৫৯ কোটি টাকা হয়। ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় ৭০৩ কোটি ৯৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৭২৪ কোটি ৪৪ লাখ ২৭ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ২০ কোটি ৫১ লাখ টাকা। এদিন ১৯ কোটি ৬৪ লাখ ৮৪ হাজার ৫৯৬টি শেয়ার এক লাখ ৫২ হাজার ৪৬১ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৩৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৩টির, কমেছে ১৭০টির, অপরিবর্তিত ছিল ৩৫টির দর।
গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বিবিএস কেব্লস। গতকাল সাত টাকা ৩০ পয়সা বেড়েছে শেয়ারটির দর। ৪১ কোটি ৯৮ লাখ টাকায় কোম্পানিটির ৩৬ লাখ ৪৩ হাজার ৪৭২টি শেয়ার লেনদেন হয়। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ারের ২৩ কোটি ৭৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোয় ছিল সায়হাম টেক্সটাইল, আমান কটন ফাইব্রাস, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, মুন্নু সিরামিক, গ্রামীণফোন, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড ও সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ। সর্বোচ্চসংখ্যক শেয়ার লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে সায়হাম টেক্সটাইল। কোম্পানিটির ৫৫ লাখ ৪০ হাজার ৬১৪টি শেয়ার ১৭ কোটি ৯৮ লাখ টাকায় লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানে ছিল প্রিমিয়ার ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, রিজেন্ট টেক্সটাইল, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ, বিবিএস কেব্লস, প্রাইম ব্যাংক ও ফাস ফাইন্যান্স। ৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে ইনটেক অনলাইন। এরপর সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজের দর ৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ, সায়হাম টেক্সটাইলের ৯ দশমিক ৮৩ শতাংশ, ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ানের সাত দশমিক ৮৬ শতাংশ, এসইএমএল লেকচার ইকুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ডের সাত দশমিক ৮৬ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, ফাস ফাইন্যান্স, যমুনা ব্যাংক, বিবিএস কেব্লস ও এমবিএল ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে।
অন্যদিকে ৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ কমে শ্যামপুর সুগার মিল দরপতনের শীর্ষে উঠে আসে। দুলামিয়া কটনের দর ৯ দশমিক ৮৫ শতাংশ কমেছে, সাভার রিফ্র্যাক্টরিজের দর কমে ৯ দশমিক ৮২ শতাংশ, জুট স্পিনার্সের ৯ দশমিক ৩২ শতাংশ এবং সুহƒদ ইন্ডাস্ট্রিজের দর সাত দশমিক ৭৮ শতাংশ কমেছে।
চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ১৫ দশমিক ২১ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৬৮ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২২ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বেড়ে ১৬ হাজার ৬৩০ পয়েন্টে অবস্থান করে। তবে সিএসই৫০, সিএসই৩০ ও সিএসআই সূচক তিন দশমিক ৬৯ পয়েন্ট কমেছে। গতকাল সর্বমোট ২৫০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৩টির, কমেছে ১১৪টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টির দর।
সিএসইতে এদিন ৪০ কোটি ৯ লাখ ১৩ হাজার ৭৫০ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২৬ কোটি ১৮ লাখ ৩৩ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ১৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা। সিএসইতে গতকাল লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ। কোম্পানিটির ১৪ কোটি ৫৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপর আমান কটন ফাইব্রাসের দুই কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এছাড়া বিবিএস কেব্লসের এক কোটি ৩৪ লাখ, রূপালী ব্যাংকের ৯৮ লাখ, বসুন্ধরা পেপারের ৭৮ লাখ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ৭৭ লাখ, ফু-ওয়াং ফুডের ৭০ লাখ, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ৫৯ লাখ, রিজেন্ট টেক্সটাইলের ৫৪ লাখ, সালভো কেমিক্যালের ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।