কোম্পানি সংবাদ

উভয় বাজারে সূচক শেয়ারদর ও লেনদেনে পতন

নিজস্ব প্রতিবেদক:উভয় পুঁজিবাজারে গতকাল সূচক, শেয়ারদর ও লেনদেনে পতন হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতনের পাশাপাশি সব সূচকের পতন হয়। লেনদেন নেমে এসেছে ৩০০ কোটি টাকার ঘরে। লেনদেনের শুরুতে ৪০ মিনিট সূচক সামান্য ইতিবাচক থাকলেও এরপর বিক্রির চাপে সূচক নেমে যেতে থাকে। শেষ পর্যন্ত এই পতন অব্যাহত থাকে। দিন শেষে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬ দশমিক ০৯ পয়েন্ট কমেছে। বাকি দুই সূচকও পতনে ছিল। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।
বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬ দশমিক ০৯ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৯ শতাংশ কমে পাঁচ হাজার ২৪৭ দশমিক ৮২ পয়েন্টে অবস্থান করে।
ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক আট দশমিক ৬৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৭০ শতাংশ কমে এক হাজার ২১০ দশমিক ৩৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। আর ডিএস৩০ সূচক ১০ দশমিক ০৮ পয়েন্ট বা দশমিক ৫৪ শতাংশ কমে এক হাজার ৮৩৬ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন তিন লাখ ৮৬ হাজার ৪৫৩ কোটি টাকা হয়। ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় ৩০৫ কোটি তিন লাখ ১৭ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৫৮ কোটি ১৬ লাখ ২১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৫৩ কোটি ১৩ লাখ টাকা। এদিন ১০ কোটি ৪৪ লাখ ৬০ হাজার ১৮৭টি শেয়ার ৮১ হাজার ৭০ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৪৩ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮৭টির, কমেছে ২১১টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৪৫টির দর।
গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ফরচুন সুজ। কোম্পানিটির ৯ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ৬০ পয়সা। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ওয়েম্যাক্স ইলেকট্রোডের আট কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ৪০ পয়সা। এসক্যোয়ার নিটের সাত কোটি ৮৩ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে দুই টাকা ১০ পয়সা। এর পরের অবস্থানে থাকা ডেসকোর সাত কোটি ৭৬ লাখ টাকা, ইন্দোবাংলা ফার্মার সাত কোটি ৬৮ লাখ টাকা, পাওয়ার গ্রিডের সাত কোটি ৩৬ লাখ টাকা, স্কয়ার ফার্মার সাত কোটি টাকা, গ্রামীণফোনের ছয় কোটি ৮৪ লাখ টাকা, যমুনা ব্যাংকের ছয় কোটি ৬১ লাখ টাকা ও মুন্নু সিরামিকের ছয় কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।
সাড়ে পাঁচ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে ইস্টার্ন কেব্লস। এরপরে গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের দর চার দশমিক ৭২ শতাংশ, ইস্টার্ন ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর চার দশমিক ৬১ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের দর তিন দশমিক ৮৪ শতাংশ, আইসিবি থার্ড এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ডের দর তিন দশমিক ৬৩ শতাংশ, প্রগতি লাইফের দর তিন দশমিক ২৭ শতাংশ, মতিন স্পিনিংয়ের দর তিন দশমিক ২১ শতাংশ বেড়েছে। এরপরের অবস্থানগুলোতে ছিল ঢাকা ব্যাংক, ড্যাফোডিল কম্পিউটার্স ও বিডি ল্যাম্পস।
অন্যদিকে সাত দশমিক ০৪ শতাংশ দর কমেছে ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ানের। সিএনএ টেক্সটাইলের দর ছয় দশমিক ২৫ শতাংশ, সিটি ব্যাংকের দর পাঁচ দশমিক ৮৫ শতাংশ, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্সের দর পাঁচ দশমিক ৪৭ শতাংশ, ন্যাশনাল ফিড মিলের দর পাঁচ দশমিক ৪৬ শতাংশ, ফাস ফাইন্যান্সের দর পাঁচ দশমিক ৪৩ শতাংশ, ফার্স্ট বাংলাদেশ ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের দর চার দশমিক ৬৫ শতাংশ, আমান কটন ফাইব্রাসের দর চার দশমিক ৪৮ শতাংশ, এসক্যোয়ার নিটের দর চার দশমিক ৪৭ শতাংশ, মেঘনা পেটের দর চার দশমিক ২২ শতাংশ কমেছে।
সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৭০ দশমিক ৭২ পয়েন্ট বা দশমিক ৭২ শতাংশ কমে ৯ হাজার ৭২১ দশমিক ৪৫ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১১৮ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৩ শতাংশ কমে ১৬ হাজার ৫৫ দশমিক ৩৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২২০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৪টির, কমেছে ১৪৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৯টির দর।
সিএসইতে এদিন ১৫ কোটি ৮৪ লাখ ৭৪ হাজার ৫৪৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ২২ কোটি ৮৫ লাখ ৭৯ হাজার ২১১ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে সাত কোটি টাকা। সিএসইতে গতকাল লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে আইএফআইসি ব্যাংক। কোম্পানিটির এক কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপর ডেসকোর এক কোটি ২৩ লাখ টাকার, ডরিন পাওয়ারের ৯৬ লাখ টাকার, গ্রামীণফোনের ৭৬ লাখ টাকার, এসএস স্টিলের ৫৯ লাখ টাকার, পাওয়ার গ্রিডের ৫১ লাখ টাকার, লাফার্জহোলসিমের ৪২ লাখ টাকার ও এসক্যোয়ার নিটের ৩৮ লাখ টাকার, ইন্দোবাংলা ফার্মার ৩৮ লাখ টাকার ও ড্রাগন সোয়েটারের ৩৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

সর্বশেষ..