বিশ্ব বাণিজ্য

এইচএসবিসির কর-পূর্ববর্তী মুনাফা বেড়েছে ৩১%

শেয়ার বিজ ডেস্ক: চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) ব্রিটেনভিত্তিক হংকং অ্যান্ড সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশনের (এইচএসবিসি) কর-পূর্ববর্তী মুনাফা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় বেড়েছে ৩১ শতাংশ। এশিয়ায় ভালো প্রবৃদ্ধি এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রেখেছে। খবর: বিবিসি।
ইউরোপের বৃহত্তম এ ব্যাংকটি প্রথম প্রান্তিকে ছয় দশমিক দুই বিলিয়ন ডলার কর-পূর্ববর্তী মুনাফা করেছে। আগের বছরের একই প্রান্তিকে এ মুনাফা ছিল চার দশমিক আট বিলিয়ন ডলার। বিশ্লেষকরা পূর্বাভাস দিয়েছিলেন এ প্রান্তিকে মুনাফা হবে পাঁচ দশমিক ৫৮ বিলিয়ন ডলার। অর্থাৎ প্রত্যাশার চেয়েও ভালো করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
এইচএসবিসির প্রধান নির্বাহী জন ফ্লিন্ট বলেছেন, বিশ্ব অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়ে অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও মুনাফার এ ইতিবাচক খবর উৎসাহজনক।
মুনাফার এ খবর প্রকাশের পর হংকংয়ের পুঁজিবাজারে এইচএসবিসির শেয়ারদর বেড়েছে দুই শতাংশ এবং লন্ডনের পুঁজিবাজারে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারদর বেড়েছে দুই দশমিক সাত শতাংশ।
এক বিবৃতিতে এইচএসবিসি জানিয়েছে, এশিয়া অঞ্চলে প্রবৃদ্ধি সার্বিক মুনাফায় ভূমিকা রেখেছে। এ অঞ্চলে প্রথম প্রান্তিকে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় আয় বেড়েছে সাত শতাংশ।
উল্লেখ্য, গত বছর এইচএসবিসির কর-পূর্ববর্তী মুনাফা ১৬ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৯৯০ কোটি ডলারে পৌঁছেছে। মূলত এশিয়া ও প্রধান বাজারগুলোয় ভালো ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধির সুবাদেই মুনাফা বেড়েছে বলে জানিয়েছে ব্যাংকটি। তবে গত বছরের চতুর্থ প্রান্তিকে ব্যবসায়িক পরিবেশে দুর্বল অবস্থার কারণে মুনাফা লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী হয়নি।
এশিয়ায় গত বছর তিন প্রান্তিক ধরে মুনাফা অর্জন করলেও চীনে শ্লথ গতির কারণে এ অঞ্চলে বিনিয়োগ কৌশল নিয়ে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে ব্যাংকটি। ২০১৭ সালে এইচএসবিসির কর-পূর্ববর্তী মুনাফা ছিল এক হাজার ৭২০ কোটি ডলার, যা গত বছর বেড়ে এক হাজার ৯৯০ কোটি ডলার হয়েছে। তবে এ মুনাফার হার পূর্বাভাসের তুলনায় কম। মোট ১৭টি বিশ্লেষকের পূর্বাভাসের ওপর ভিত্তি করে রেফিনিটিভের প্রকাশিত উপাত্তে বলা হয়েছে, দুই হাজার ২০০ কোটি ডলারের কর-পূর্ববর্তী মুনাফা অর্জন করবে এইচএসবিসি।
এইচএসবিসির দায়িত্ব গ্রহণের পর গত জুনে প্রথমবারের মতো প্রতিষ্ঠান নিয়ে নিজের কৌশল-পরিকল্পনা প্রকাশ করেন ফ্লিন্ট। সে সময় তিনি বলেছিলেন, প্রযুক্তি ও চীনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আগামী তিন বছর দেড় হাজার থেকে এক হাজার ৭০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে এইচএসবিসি। মুনাফা ও লভ্যাংশ লক্ষ্যমাত্রার ক্ষেত্রেও কিছুটা পরিবর্তন নিয়ে আসেন তিনি। ফ্লিন্ট আরও বলেন, ‘প্রয়োজন অনুযায়ী আয় প্রবৃদ্ধির ঝুঁকি মোকাবিলায় ব্যবস্থাপনা ব্যয় নিয়ন্ত্রণ ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আমরা সক্রিয় থাকব।’

সর্বশেষ..