প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

এক-চতুর্থাংশের বেশি লেনদেন ব্যাংক খাতে 

রুবাইয়াত রিক্তা: পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগের শর্ত শিথিল করে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রজ্ঞাপন জারি করে গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল গতিশীল অবস্থানে দেখা গেছে পুঁজিবাজারকে। এক দিনেই সম্পূর্ণ পাল্টে গেছে পুঁজিবাজারের চিত্র। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচকের প্রায় ১০৫ পয়েন্ট উত্থানের পাশাপাশি লেনদেন বেড়েছে দেড়শ কোটি টাকার বেশি। দর বেড়েছে প্রায় ৭৯ শতাংশ কোম্পানির। গতকাল সূচকের টানা উত্থান হয়েছে। শেয়ার কেনা হয়েছে সব খাতেই। খুব কম মাত্র ১৩ শতাংশ কোম্পানি দরপতনে ছিল। তবে বৃহৎ খাতগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গতিশীল ছিল ব্যাংক ও আর্থিক খাত। অন্যদিকে ছোট খাতগুলোর মধ্যে টেলিযোগাযোগ ও চামড়া শিল্প খাত শতভাগ ইতিবাচক ছিল। সেবা ও আবাসন এবং ভ্রমণ ও অবকাশ খাতে কোনো কোম্পানি দরপতনে ছিল না।
গতকাল মোট লেনদেনের এক-চতুর্থাংশের বেশি হয় ব্যাংক খাতে। এ খাতে লেনদেন হয় প্রায় ১০৪ কোটি টাকা। এ খাতে কোনো কোম্পানি দরপতনে ছিল না। লেনদেনের শীর্ষ দশে থাকা আইএফআইসি ব্যাংকের সাড়ে ১৪ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৮০ পয়সা। এক্সিম ব্যাংকের সোয়া ১২ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৩০ পয়সা। উত্তরা ব্যাংকের সাড়ে ১০ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর বেড়েছে এক টাকা। ব্যাংক এশিয়ার সাড়ে আট কোটি টাকা, প্রিমিয়ার ব্যাংকের সোয়া আট কোটি টাকা ও সিটি ব্যাংকের আট কোটি টাকা লেনদেন হয়। সব কোম্পানির দর ইতিবাচক ছিল। আর্থিক খাতে লেনদেন বেড়ে ছয় শতাংশ হয়েছে। এ খাতে ৯৬ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। প্রায় ১০ শতাংশ বেড়ে ফাস ফাইন্যান্স ও ৯ শতাংশ বেড়ে প্রিমিয়ার লিজিং দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশে উঠে আসে। বস্ত্র খাতে ৭৪ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৭৪ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। এ খাতের ইন্দোবাংলা ফার্মার পৌনে আট কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে এক টাকা ৪০ পয়সা। প্রকৌশল খাতে ৮১ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। চামড়াশিল্প খাতের ফরচুন শুজের সাড়ে ১৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৪০ পয়সা। কোম্পানিটি লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে। বিবিধ খাতের এসকে ট্রিমসের সোয়া ১১ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর বেড়েছে চার টাকা ৪০ পয়সা।
ট্যাগ »

সর্বশেষ..