বিশ্ব সংবাদ

এপ্রিলে তেল রফতানি কমাবে সৌদি আরব

শেয়ার বিজ ডেস্ক: আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে সম্প্রতি পণ্যটির সরবরাহ কমানোর উদ্যোগ নিয়েছে প্রধান রফতানিকারক দেশগুলো। এর অংশ হিসেবে সৌদি আরবও উৎপাদন কমিয়ে প্রতিদিন ১০ মিলিয়ন ব্যারেল করেছে। এবার আগামী মাসে দেশটি তেলের রফতানি কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। দেশটির এক কর্মকর্তা বলেন, আগামী মাসে রফতানি প্রতিদিন সাত মিলিয়ন ব্যারেলে নামিয়ে আনা হবে। খবর আরব নিউজ।
ওই কর্মকর্তা জানান, আগামী এপ্রিলে আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের তরফ থেকে সাত দশমিক ছয় মিলিয়ন ব্যারেলের চাহিদা থাকলেও রফতানি সাত মিলিয়ন ব্যারেলের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা হবে। চলতি মার্চেও পণ্যটির রফতানি সাত মিলিয়ন ব্যারেলে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি। আগামি মাসে রফতানি করা তেলের মধ্যে প্রতিদিন ছয় লাখ ৩৫ হাজার ব্যারেল সরবরাহ করবে সৌদি আরবের রাষ্ট্রায়ত্ত জ্বালানি কোম্পানি সৌদি আরামকো।
জ্বালানি তেল রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেক ও ওপেকবহির্ভূত প্রধান উত্তোলক দেশগুলো পণ্যটির দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রতিদিন ১২ লাখ ব্যারেল তেল কম উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়া ইরান ও ভেনেজুয়েলার ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার কারণে সরবরাহ আরও কমে যায়।
২০১৪ সালে তেলের দাম কমে ৩০ ডলারে পৌঁছেছিল। পরে উৎপাদন কমিয়ে আনে দেশগুলো। এতে পণ্যটির দাম ৯০ ডলারে গিয়ে পৌঁছায়। দাম যাতে না বাড়ে সেজন্য আবার উৎপাদন বাড়ায় ওপেক। এখন আবার দাম কমেছে। কিন্তু ২০১৪ সালের মতো দরপতন ঠেকাতে আগেই উৎপাদন কমাতে একমত হয়েছে জ্বালানি তেল রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেক ও অন্য প্রধান দেশগুলো।
গত বছর ভিয়েনায় অনুষ্ঠিত ওপেকভুক্ত দেশগুলো এবং সংগঠনটির বাইরে অবস্থানকারী অপরিশোধিত জ্বালানি তেল উৎপাদকদের বৈঠকের বাইরে ছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

সর্বশেষ..