সারা বাংলা

কমলগঞ্জে বন্যায় সাড়ে ছয় কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত

প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় চার দিনের বন্যায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) ১০টি সড়কের প্রায় সাড়ে ছয় কিলোমিটার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যার পানিতে রাস্তার বিভিন্ন অংশে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে এক কোটি ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। উপজেলার বন্যা-আক্রান্ত এলাকার রাস্তাগুলো বিপর্যস্ত হয়ে পড়ায় যানবাহন চলাচল ও পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কয়েকটি গ্রামের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে।
এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, কমলগঞ্জ উপজেলায় চার দিনের বন্যায় রাস্তাঘাট ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশেষ করে ভানুগাছ ভায়া চৈতন্যগঞ্জ মূল সড়কের রামপাশা এলাকায় পানির তোড়ে প্রায় ১০০ মিটার রাস্তা সম্পূর্ণ ভেঙে যাওয়ায় দুদিন ধরে তিনটি গ্রামের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। এছাড়া ভানুগাছ থেকে সরইবাড়ী রাস্তার ৯০০ মিটার, আদমপুর জিসি-ভানুগাছ-জিসি ভায়া ইসলামপুর রাস্তা ২০০ মিটার, আদমপুর আদকানী বাজার ভায়া কাউয়ারগলা রাস্তা ৪০০ মিটার, আদমপুর ইউপি অফিস ভায়া ভানুবিল জাঙ্গালিয়া মঙ্গলপুর এক কিলোমিটার, গোলেও হাওর ইসলামপুর অফিস রাস্তা ১০০ মিটার, আলীনগর চৌমুহনী ভায়া পূর্বকালিপুর ২০০ মিটার রাস্তাসহ সারা উপজেলায় প্রায় সাড়ে ছয় কিলোমিটার সড়ক ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতির পরিমাণ এক কোটি ৫০ লাখ টাকা।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, রাস্তাগুলোর বিভিন্ন অংশের পিচ ও পাথর সরে গেছে। কোথাও কোথাও রাস্তার পাঁচ থেকে ১০ ফুট সড়কের মাটি বন্যার পানিতে ভেঙে গেছে। রাস্তাগুলোতে সৃষ্টি হয়েছে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের। এতে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করতে এবং পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে দেখা গেছে।
উপজেলা প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম জানান, বন্যায় উপজেলার এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ছয় কিলোমিটার রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে দেড় কোটি টাকার ওপরে ক্ষতি হয়েছে। প্রতিদিন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রতিবেদন পাঠাচ্ছেন। দিন দিন ক্ষতির পরিমাণ বাড়ছে।

সর্বশেষ..



/* ]]> */