বিশ্ব সংবাদ

কিমের ওপর আস্থা অটুট ট্রাম্পের

শেয়ার বিজ ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার শীর্ষনেতা কিম জং-উনের প্রতি তার অগাধ বিশ্বাসের মনোভাব পুনর্ব্যক্ত করেছেন। পিয়ংইয়ংয়ের সাম্প্রতিক পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ও পরমাণু নিরস্ত্রীকরণবিষয়ক আলোচনা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরও গতকাল এক টুইট-বার্তায় দেশটির প্রতি এ আস্থা ব্যক্ত করেন তিনি। খবর: এএফপি।
এশীয় মিত্রদেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক ঝালাই করতে বর্তমানে জাপান সফরে থাকা ট্রাম্প লেখেন, ‘উত্তর কোরিয়া খুবই স্বল্পমাত্রার অস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে, যেটা আমার কয়েকজন লোক এবং অন্যদের জন্য বিরক্তির কারণ হলেও আমার জন্য হয়নি। কিমের ওপর আমার পূর্ণ আস্থা রয়েছে যে, তিনি অবশ্যই আমাকে দেওয়া তার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবেন।’
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ট্রাম্পের নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বলেন, তিনি শতভাগ নিশ্চিত যে উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে সাম্প্রতিক সময়ে চালানো পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা জাতিসংঘের নীতিমালার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। গত ৪ ও ৯ মে দুটি স্বল্পমাত্রার মিসাইল ১৮ মাসের মধ্যে প্রথম পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া।
গত শুক্রবার পিয়ংইয়ংয়ের কাগজে-কলমে অনুমোদিত সংসদে এক বক্তব্যে কিম জানান, ওয়াশিংটন পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি ঘটাতে ‘সত্যিই আগ্রহী’ কি না, সে বিষয়ে হ্যানয় বৈঠকে ওয়াশিংটনের মনোভাবে তার মনে প্রশ্ন জেগেছে।
কিম জং-উন বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র যদি সঠিক মনোভাব নিয়ে উভয় পক্ষের জন্য গ্রহণযোগ্য শর্তসাপেক্ষে আলোচনায় বসতে চায়, তবে আমরা তৃতীয় দফা বৈঠকের মাধ্যমে আরেকবার চেষ্টা করে দেখতে পারি।’ ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক এখনও যথেষ্ট ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করে উন বলেন, তারা চাইলে যখন খুশি তখন ‘পরস্পরকে চিঠি লিখতে পারেন।’ গত বছরের জুনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের মধ্যকার বহুল প্রত্যাশিত প্রথম বৈঠকটি সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপে অনুষ্ঠিত হয়। সেবার ‘কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু শক্তিচ্যুত’ করার একটি অস্পষ্ট চুক্তিতে স্বাক্ষর করে দেশ দুটি।

 

সর্বশেষ..