স্পোর্টস

ক্যারিবীয়দের সামনে ‘ফেভারিট’ বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক: ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের চেয়ে এক ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ। সাম্প্রতিক সময়েও দলটির বিপক্ষে একাধিক সিরিজ জয়ের স্মৃতি রয়েছে টাইগারদের। যে কারণে আজ বিশ্বকাপে নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে জেসন হোল্ডারদের চেয়ে নিজেদের ‘ফেভারিট’ ভাবছে স্টিভ রোডসের শিষ্যরা। সেই তকমা মাথায় নিয়েই টন্টনের ছোট মাঠে জয়ের খোঁজে নামছেন তামিম ইকবাল-মাশরাফি বিন মুর্তজারা।
সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে এগিয়ে থাকলেও সব মিলিয়ে ওয়ানডে জয়ের পাল্লাটা ভারি ওয়েস্ট ইন্ডিজের। কেননা, এখন পর্যন্ত দুই দেখায় ১৪ বার জিতেছে টাইগাররা। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ হেসেছে ২১ ম্যাচে।
বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আজ টাইগাররা ভিন্ন এক ক্যারিবীয় বাহিনীকে সামনে পাচ্ছে। কেননা, দলটিতে রয়েছেন ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেল, এভিন লুইসদের মতো তারকা। তারপরও মোটেও ভয় পাচ্ছে না বাংলাদেশ। ফেভারিট হিসেবেই দলটির বিপক্ষে খেলবে টাইগাররা সেই হুংকার দিয়েছেন তামিম ইকবাল, ‘কেন ফেভারিট নই? সম্প্রতি ওদের সঙ্গে যদি হিসাব করেন, আমরাই বেশ জিতেছি। আমরা ফেভারিট হতেই পারি। কারণ, আয়ারল্যান্ডে আমরা ওদের সঙ্গে সবকটি ম্যাচই জিতেছি। ফেভারিট আমরা হতেই পারি।’
এবারের বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দারুণ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের খুব কাছ থেকে ফেরে টাইগাররা। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচেও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হারই সঙ্গী হয় মাশরাফিদের। তবে তারা আশা করেছিলেন, শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে ফিরবেন স্বরূপে। কিন্তু তেমনটি হতে দেয়নি ব্রিস্টলের বৃষ্টি। অন্যদিকে নটিংহ্যামে পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারিয়ে চলতি বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পথচলা শুরু করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পরের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে ১৫ রানে হেরেছিল দলটি। তারপরও প্রতিপক্ষদের অন্যরকম কিছু বার্তা দিয়েছিল ক্যারিবীয়রা। তামিমও সে কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন, ‘বিশ্বকাপের প্রথম দুটি ম্যাচে যেভাবে খেলেছে, ওদের দেখে মনে হয়নি এটা ছয় মাস আগের সেই দল। আমাদের খেলাও দেখুন, আমরা যেভাবে প্রথম দুই ম্যাচ খেলেছি, আমাদেরও ভিন্নরকম দল দেখাচ্ছিল। এ কন্ডিশনে এসে আমরা বিশ্বসেরা দলগুলোর বিপক্ষে খেলছি। কন্ডিশন আমাদের পক্ষে ছিল না; কিন্তু তারপরও ভালো খেলেছি। তবে আমার মনে হচ্ছে, ১৭ জুন একটি ভালো ম্যাচ হবে।’
গত তিন ম্যাচে দুটি হেরে, একটি বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় চলতি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে ওঠার পথটি বেশ কঠিনই হয়ে পড়েছে বাংলাদেশের। তবে ব্যাপারটি সেভাবে ভাবছেন না তামিম, ?‘কয়টি ম্যাচ জিততে হবে, আর কয়টি জিতলে আমরা সেমিফাইনালে উঠব, সত্যি কথাÑএভাবে করে আমরা কেউ ভাবছি না। আমাদের শেষ ম্যাচ (শ্রীলঙ্কা) হওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। খেলাটি হলে আমরা যদি জিততে পারতাম, তাহলে অবশ্যই আমাদের জন্য ভালো হতো। কিন্তু ৫ তারিখে আগে কি হবে-না হবে, সত্যি এভাবে করে আমরা কেউ ভাবছি না। আমাদের আরও ৫টি খেলা বাকি আছে। বলতে পারেন, আমরা প্রতিটি ম্যাচ নিয়েই ভাবছি। কারণ, ব্যাক অব দ্য মাইন্ডে আমরা জানি এ ৫টির মধ্যে অধিকাংশই জিততে হবে, যদি আমরা শেষ চারে যেতে চাই। আগেই যদি ফিনিশ লাইনটা দেখে নিই, তাহলে আমার মনে হয় না এটি ভালো কোনো আইডিয়া।’
চলতি বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছেন সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার। কিন্তু তামিমের ব্যাট এখনও সেভাবে জ্বলে ওঠেনি। তবে ড্যাশিং এ ওপেনার সেঞ্চুরি করেই ফিরতে চান আপন মহিমায়। আজই সেটা দেখাতে পারেন তিনি।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে টাইগারদের চিন্তার জায়গা বোলিং। কেননা, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রায় সবাই ছিল খরুচে। এজন্য আজ একাদশে একাধিক পরিবর্তন আনতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট।
আজ নিজেদের ফেভারিট ভাবলেও তামিম কিন্তু দিতে পারেননি নিশ্চয়তা। তার মতে, ম্যাচের দিনের পারফরম্যান্সই গুরুত্বপূর্ণ, ‘ফেভারিট কে বা কে নয়Ñসেটি কোনো ব্যাপার নয়। ক্রিকেট খেলাটাই এমন যে, নির্দিষ্ট দিনে যে দল সেরাটা খেলবে, তারাই জিতবে। এ বিশ্বকাপের সব দলই সবাইকে হারাতে পারে। ফেভারিট তকমা তাই গুরুত্বপূর্ণ নয়।’

সর্বশেষ..