খোলা জায়গার অভাবে ভিডিও গেমসে আসক্ত বস্তির শিশুরা

সেভ দ্য চিলড্রেনের গবেষণা

মাসুম বিল্লাহ: সাধারণত ঢাকা শহরে শিশু-কিশোরদের খেলাধুলা করার মতো খোলা জায়গার সংকট রয়েছে। তবে সরকারি আবাসিক এলাকাগুলোয় সে সংকট কিছুটা কম। পাশাপাশি অভিজাত বেসরকারি আবাসিক এলাকায়ও ভাড়াভিত্তিক কিছু খেলার মাঠ আছে, কিন্তু এক্ষেত্রে একদম পিছিয়ে বস্তি এলাকা। ঘনবসতির এসব বস্তিতে শিশুদের বিচরণের তেমন কোনো স্থান নেই। তাই বাবা-মা জীবিকার তাগিদে বাড়ির বাইরে গেলে বস্তি এলাকার ভাড়াভিত্তিক ভিডিও গেমসের দোকানগুলোই তাদের একমাত্র বিনোদনকেন্দ্র। এতে করে ভিডিও গেমসের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে এসব শিশু। সম্প্রতি সেভ দ্য চিলড্রেন বাংলাদেশের এক গবেষণায় এমনটি উঠে এসেছে।
শিশুদের নিয়ে কাজ করা আন্তর্জাতিক সংস্থাটির ঢাকা কার্যালয়ের উদ্যোগে পরিচালিত এক গবেষণার ফলে এমনটি জানা গেছে। সেভ দ্য চিলড্রেনের পক্ষে গবেষণাটি পরিচালনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সালমা আক্তার। গবেষণাটির ফলাফলে বলা হয়, বস্তি এলাকায় ইলেকট্রনিক ডিভাইসভিত্তিক গেমস খুবই প্রিয় শিশুদের। কল্যাণপুর বস্তির ৫২ শতাংশ শিশুই ভিডিও গেমস খেলে। ধানমন্ডি আবাসিক এলাকায় এ হার ১২ শতাংশ, মিরপুরে ২১ শতাংশ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মাত্র ৯ শতাংশ। এর মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় শিশুদের আউটডোর খেলাধুলা করার সুযোগ সবচেয়ে বেশি। গবেষণা থেকে বোঝা যাচ্ছে, যেসব এলাকায় খেলাধুলা করার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা নেই, সেখানে শিশুদের মধ্যে ভিডিও গেমসের প্রতি আসক্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি।
গবেষণার জরিপ চলাকালে দেখা যায়, ফুটবল খেলার সুযোগ আধুনিক আবাসিক এলাকাগুলোয় বেশি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় শিশুদের খেলাধুলা করার মতো যথেষ্ট খোলা জায়গা আছে। আর ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার শিশুরা বিভিন্ন ভাড়া করা মাঠে খেলার সুযোগ পায়, কিন্তু বস্তি এলাকার শিশুরা এ সুযোগ পায় না।
এদিকে শিশু-কিশোরদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় আউটডোর খেলা হিসেবে বিবেচিত হয়েছে ফুটবল। জরিপে অংশ নেওয়াদের মধ্যে ৫১ শতাংশ ছেলে শিশু জানিয়েছে, তারা ফুটবল খেলতে স্বচ্ছন্দ বোধ করে। আর বালিকাদের ক্ষেত্রে এ হার ২৩ শতাংশ। আর ক্রিকেট খেলতে পছন্দ করে ১৯ শতাংশ বালক ও ৯ শতাংশ বালিকা। তবে মেয়েশিশুদের প্রিয় খেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে ব্যাডমিন্টন, দড়িটানা, বাসকেটবল, দোলনা ও সাঁতার। আর বস্তি এলাকায় ভিডিও গেমসের প্রতি শিশুদের আগ্রহ বেশি থাকলেও সার্বিক মূল্যায়নে দেখা গেছে এ হার কম নয়। ছেলে-মেয়ে উভয়ের ক্ষেত্রেই দেখা গেছে ৩৯ শতাংশ ছেলে ও মেয়েশিশু বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ভিডিও গেমস পছন্দ করে। এর মধ্যে ১৬ শতাংশ ছেলেশিশু ও ছয় শতাংশ মেয়েশিশু কম্পিউটারে ভিডিও গেমস খেলতে স্বচ্ছন্দ বোধ করে।
গবেষণায় জানা যায়, বিভিন্ন ধরনের আউটডোর খেলায় অংশ নিলেও কম্পিউটার ও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে খেলা যায়, এমন ডিজিটাল খেলার প্রতি শিশুদের আগ্রহ বাড়ছে। আউটডোর খেলার চেয়ে ডিজিটাল খেলায় বেশি সময় ব্যয় করছে তারা। এক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে ডিজিটাল খেলা বস্তিগুলোয় সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়।