কোম্পানি সংবাদ

গত সপ্তাহে দর বৃদ্ধির তালিকায় শীর্ষ ১০টিই ছিল মিউচুয়াল ফান্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে দর বৃদ্ধির তালিকায় শীর্ষ ১০টিই ছিল মিউচুয়াল ফান্ড। আর এ তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড। আলোচিত সময়ে ফান্ডটির শেয়ারদর বেড়েছে ৫৯ দশমিক ৭১ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
সূত্রমতে, গত সপ্তাহে মিউচুয়াল ফান্ডটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৯ লাখ ৩৪ হাজার ৪০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ ৪৬ লাখ ৭২ হাজার টাকা।
এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে ফান্ডটির দর ৯ দশমিক ৯০ শতাংশ বা চার টাকা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ৪৪ টাকা ৪০ পয়সায় এর ইউনিট হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল ৪৪ টাকা ৪০ পয়সা। দিনভর ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর ৪৪ টাকা ৪০ পয়সা থেকে ৪৪ টাকা ৪০ পয়সায় লেনদেন হয়। গত এক বছরে এ ইউনিটের সর্বোচ্চ দর ছিল ৪৪ টাকা ৪০ পয়সা ও সর্বনিম্ন চার টাকা ৫০ পয়সা। ওইদিন তিন হাজার ৬২৩টি ইউনিট ১৭ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য এক লাখ ৬১ হাজার টাকা।
২০১৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ‘এ’ ক্যাটেগরির এ মিউচুয়াল ফান্ডটির পরিশোধিত মূলধন ৭২ কোটি ৯৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা। মোট ইউনিট সাত কোটি ২৯ লাখ ৪৪ হাজার ৫০০টি, যার মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালক ৫১ দশমিক ৪১ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ৪৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে রয়েছে বাকি শূন্য দশমিক ১৫ শতাংশ শেয়ার।
তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ্ ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ৫৮ দশমিক ৮২ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন ১৯ লাখ ২৯ হাজার ২০০ টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৯৬ লাখ ৪৬ হাজার টাকার ইউনিট।
এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে ৯ দশমিক ৪৬ শতাংশ বা এক টাকা ৪০ পয়সা বেড়ে সর্বশেষ ১৬ টাকা ২০ পয়সায় এর ইউনিট হাতবদল হয়। সমাপনী দরও ছিল ১৬ টাকা ২০ পয়সা। দিনভর ফান্ডটির শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গত এক বছরে এ ইউনিটের সর্বোচ্চ দর ছিল ১৬ টাকা ২০ পয়সা ও সর্বনিম্ন ছয় টাকা ৪০ পয়সা। ২০১৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ‘এ’ ক্যাটেগরির এ মিউচুয়াল ফান্ডটির পরিশোধিত মূলধন ১০০ কোটি টাকা। মোট ইউনিট ১০ কোটি, যার মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালক ৫০ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ৪৫ দশমিক ২৮ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে রয়েছে বাকি চার দশমিক ৭২ শতাংশ শেয়ার।
তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফিনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ৫৬ দশমিক ছয় শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন দুই কোটি ৬৮ লাখ ৯৩ হাজার টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৪৪ লাখ ৬৫ হাজার টাকার ইউনিট।
তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে আইসিবি এএমসিএল ফার্স্ট অগ্রণী ব্যাংক মিউচুয়াল ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ২৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন তিন কোটি আট লাখ ৪৩ হাজার ৪০০ টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৪২ লাখ ১৭ হাজার টাকার ইউনিট।
তালিকার পঞ্চম স্থানে রয়েছে প্রাইম ব্যাংক ফার্স্ট আইসিবি এএমসিএল মিউচুয়াল ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ২৫ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন এক কোটি ১৬ লাখ ৯৯ হাজার ৪০০ টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে পাঁচ কোটি ৮৪ লাখ ৯৭ হাজার টাকার ইউনিট।
তালিকার ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ান: স্কিম। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ২৩ দশমিক ২১ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন ৭৮ লাখ ৫৮ হাজার টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে তিন কোটি ৯২ লাখ ৯০ হাজার টাকার ইউনিট।
তালিকার সপ্তম অবস্থানে রয়েছে এসইএমএল লেকচার ইকুয়িটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ২২ দশমিক ৫৫ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন তিন কোটি ১৫ লাখ ৬০ হাজার টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৭৮ লাখ টাকার ইউনিট।
তালিকার অষ্টম অবস্থানে রয়েছে আইসিবি এএমসিএল সেকেন্ড মিউচুয়াল ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ১৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন ৯৮ লাখ ৫৭ হাজার ৪০০ টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে চার কোটি ৯২ লাখ ৮৭ হাজার টাকার ইউনিট।
তালিকার নবম অবস্থানে রয়েছে এনসিসিবিএল মিউচুয়াল ফান্ড-১। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ১৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন ২৩ লাখ ২১ হাজার ২০০ টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে এক কোটি ১৬ লাখ ছয় হাজার টাকার ইউনিট। তালিকার দশম অবস্থানে রয়েছে সিএপিএম আইবিবিএল ইসলামিক মিউচুয়াল ফান্ড। ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি দর বেড়েছে ১৮ দশমিক ৫৬ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ফান্ডটির প্রতিদিন দুই কোটি ৮৫ লাখ ৮৫ হাজার ৪০০ টাকার ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৪ কোটি ২৯ লাখ ২৭ হাজার টাকার ইউনিট।

সর্বশেষ..



/* ]]> */