ঘুরে দাঁড়িয়েছে জাপানের প্রবৃদ্ধি

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী বাণিজ্য উত্তেজনা সত্ত্বেও চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে জাপানের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বিশ্লেষকদের প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে এ প্রান্তিকে প্রবৃদ্ধি হয়েছে এক দশমিক ৯ শতাংশ। বেসরকারি খাতে খরচ বৃদ্ধি প্রবৃদ্ধিতে ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে। খবর বিবিসি।
গত দুবছরের মধ্যে চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে জাপানের প্রবৃদ্ধি কমেছিল। বিশ্ব বাণিজ্যে উত্তেজনার মধ্যেই ওয়াশিংটনে বাণিজ্য নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসেছে জাপান। এর মধ্যে দেশটির প্রবৃদ্ধির ইতিবাচক খবর প্রকাশিত হলো।
প্রতিবেদনমতে, এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে জাপানের এক দশমিক চার শতাংশ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছিলেন বিশ্লেষকরা, যাকে ছাড়িয়ে গেছে প্রবৃদ্ধি। বিশ্বের তৃতীয় অর্থনীতির দেশটির প্রথম প্রান্তিকে প্রবৃদ্ধি হয়েছিল দশমিক ৯ শতাংশ। এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে প্রবৃদ্ধিতে মূলত ভোক্তা খরচ বৃদ্ধি বড় ভূমিকা রেখেছে। প্রথম প্রান্তিকে বেসরকারি বিনিয়োগ ও সরকারি ব্যয় কমে যাওয়ায় অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। ১৯৮০ সালের পর দেশটিতে টানা প্রবৃদ্ধি হয়ে আসছিল।
গত প্রান্তিকেই কোনো কোনো বিশ্লেষক বলেছিলেন, সাম্প্রতিক সময়ে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে চলমান বাণিজ্য উত্তেজনায় বিশ্বব্যাপী ব্যবসায়িক মনোভাবে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এ কারণে জাপানের শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোও তাদের খরচ কমিয়ে দিয়েছে। এ প্রবণতা খুব শিগগিরই পরিবর্তন হবে বলে মনে করেন না তারা।
শিজুওকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপক সেজিরো তাকেশিতা বলেন, গোটা বিশ্বের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্ভাব্য সংরক্ষণবাদ নীতির কারণে ইয়েনের শক্তিশালী অবস্থানে জাপানের করপোরেশনগুলো বিনিয়োগ থেকে সরে আসছে। এতে মূলধন ব্যয় কমে গেছে, যা দেশটির অর্থনীতির জন্য উদ্বেগের বিষয়। তিনি বলেন, আবারও এরকম নেতিবাচক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। আর সেটা হলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।