প্রচ্ছদ শেষ পাতা

চট্টগ্রামে ৭২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুর মাংস

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম: রমজানের আগে ঢাকায় গরুর মাংসের দাম নির্ধারণ করে দেয় সিটি করপোরেশন। এক্ষেত্রে প্রতি কেজি গরুর মাংস ৫২৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়। যদিও অনেক স্থানেই এ দাম মানা হচ্ছে না। তবে চট্টগ্রামে এক কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭২০ টাকা (হাড় ছাড়া)।
ঢাকায় মাংসের মূল্য নির্ধারণ করে তা বাস্তবায়নে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেটরা অভিযান চালাচ্ছেন। তবে চট্টগ্রামের মাংস ব্যবসায়ীরা সুযোগ পেয়ে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। আর তা তদারকিতে কোনো সংস্থা অভিযান পরিচালনা করছে না। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাধারণ ক্রেতারা।
বাজার-সংশ্লিষ্টরা বলেন, রমজানে ক্রেতার স্বার্থরক্ষায় ঢাকায় সিটি করপোরেশন গরুর মাংসের দাম নির্ধারণ করে দেয় প্রতি কেজি ৫২৫ টাকা। যদিও চট্টগ্রামে প্রতি কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬২০ টাকা (হাড়সহ) ও ৭২০ টাকা (হাড় ছাড়া)। ঢাকায় সিটি করপোরেশন নির্ধারিত দাম না মানায় গত দুদিনে বেশ কিছু স্থানে জরিমানা করা হয়। তবে চট্টগ্রামে মাংসের দামের বিষয়টি তদারকিতে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন, জেলা ভোক্তা অধিদফতরসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থা কোনো অভিযান পরিচালনা করছে না।
সরেজমিনে জানা যায়, চট্টগ্রামের প্রধান প্রধান কাঁচাবাজার রিয়াজউদ্দিন বাজার, কাজীর দেউরি বাজার, চকবাজার, বহদ্দারহাট বাজারসহ সবগুলো বাজারে প্রতি কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬২০ টাকা (হাড়সহ) ও ৭০০-৭২০ টাকা (হাড় ছাড়া)। চকবাজারের লোকমান হোসেন নামের এক মাংস বিক্রেতা বলেন, বাজারে গরুর সরবরাহ কম থাকায় মাংসের দাম বেড়েছে। যদি ভারত থেকে গরু না আসত, তাহলে দাম এক হাজার টাকা হতো। সঙ্গে সঙ্গে এ কথার প্রতিবাদ করে উপস্থিত কয়েকজন ক্রেতা বলেন, দেশে গরুর অভাব নেই। ভারত ও অন্যান্য দেশ থেকে মাত্র সাত-আট শতাংশ গরু আসে, যা আমাদের উৎপাদনের তুলনায় কিছুই নয়।
কায়সার আলী চৌধুরী নামে এক মাংস ক্রেতা বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্ধারণ করে দেওয়া প্রতি কেজি গরুর মাংস ৫২৫ টাকা। সে জায়গায় চট্টগ্রামে এক কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬২০ টাকা (হাড়সহ)। ঢাকায় মাংসের নির্ধারিত মূল্য কার্যকরে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেটরা অভিযান চালাচ্ছেন আর চট্টগ্রামের কসাইরা বেপরোয়া। এ রমজানে মানুষ যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী ভালোমন্দ খেতে চায়, আর সেটাকে পুঁজি করে যে যেভাবে পারছে লুটে নিচ্ছে মুনাফা। এক্ষেত্রে মেয়র সাহেবের উদ্যোগী ভূমিকা পালন করা উচিত।
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সামছুদ্দোহা শেয়ার বিজকে এ বিষয়ে বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন গরুর মাংসের দাম নির্ধারণ করে না দিলেও নিয়মিত বাজার মনিটর করছে। অতিরিক্ত দামে বিক্রি করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের চট্টগ্রাম জেলা কার্যাল?য়ের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান শেয়ার বিজকে বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন গরুর মাংস বিক্রির মূল্য নির্ধারণ করে না দেওয়ায় আমাদের সমস্যা হচ্ছে। কারণ, সরকারি কোনো সংস্থা থেকে মূল্য নির্ধারণ করা না হলে বাজার তদারকিতে সমস্যা হয়ে যায়। এছাড়া কেউ অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করলেও আমাদের করার কিছু থাকে না। আর অতিরিক্ত মূল্যের জন্য জরিমানা করা হলে যদি কেউ প্রশ্ন করেন আপনারা কীসের ভিত্তিতে জরিমানা করছেন; তখন আমাদের উত্তর দেওয়ার কিছু থাকবে না।

সর্বশেষ..