চলতি সপ্তাহে দুই কোম্পানির পর্ষদ সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি সপ্তাহে তালিকাভুক্ত দুই কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সর্বশেষ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স: আগামী ১৩ আগস্ট বেলা ২টা ৫০ মিনিটে পরিচালনা পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে লভ্যাংশ দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে। ওইদিন একই সময় সভায় ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রথম প্রান্তিক ও ২০১৮ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।
শেয়ারদর সর্বশেষ কার্যদিবসে এক দশমিক ৫৩ শতাংশ বা ৫০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ৩২ টাকা ২০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ৩১ টাকা ৭০ পয়সা। দিনজুড়ে ১৫ লাখ ৬৩ হাজার ৯৩২টি শেয়ার মোট এক হাজার ৪৯০ বার হাতবদল হয়, যা বাজারদর পাঁচ কোটি ২০ লাখ চার হাজার টাকা। দিনজুড়ে শেয়ারদর সর্বনিম্ন ৩১ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৩৫ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়। এক বছরে শেয়ারদর ২৫ টাকা থেকে ৫৪ টাকার মধ্যে ওঠানামা করে।
২০১৬ সালের সমাপ্ত হিসাববছরে কোম্পানিটি ২০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে, যা আগের বছরের চেয়ে ১২ শতাংশ বেশি।
১০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৩৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট তিন কোটি ৮৮ লাখ ৮০ হাজার শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ৪১ দশমিক ৫৬ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ১৬ দশমিক ৭৯ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে বাকি ৪১ দশমিক ৬৫ শতাংশ শেয়ার।
সন্ধানী লাইফ ইন্স্যুরেন্স: আগামী ১৪ আগস্ট বেলা ২টা ৪৫ মিনিটে পরিচালনা পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে লভ্যাংশ দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে। ওইদিন একই সময় ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রথম প্রান্তিক ও ২০১৮ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।
শেয়ারদর সর্বশেষ কার্যদিবসে দশমিক ৭৪ শতাংশ বা ২০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ২৭ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ২৬ টাকা ৮০ পয়সা। দিনজুড়ে ৭২ হাজার ৪৭৮টি শেয়ার মোট ১৫৩ বার হাতবদল হয়, যা বাজারদর ১৯ লাখ ৬৭ হাজার টাকা। দিনজুড়ে শেয়ারদর সর্বনি¤œ ২৬ টাকা ৫০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ২৭ টাকা ৭০ পয়সায় হাতবদল হয়। এক বছরে শেয়ারদর ২৫ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ৩৭ টাকা ২০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।
২০১৬ সালের সমাপ্ত হিসাববছরে কোম্পানিটি ২০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে, যা আগের বছরের চেয়ে পাঁচ শতাংশ কম।
২০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৯১ কোটি ৪১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট ৯ কোটি ১৪ লাখ ১৫ হাজার ৫২৭ শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ৩০ দশমিক ৪১ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ২৫ দশমিক ২৯ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে বাকি ৪৪ দশমিক ৩০ শতাংশ শেয়ার।