চালু হোক কুমিল্লার নজরুল ইনস্টিটিউটের জেনারেটর

পাঠকের চিঠি

কুমিল্লার প্রাণকেন্দ্র ধর্মসাগরের পাশে নজরুল ইনস্টিটিউট কেন্দ্র অবস্থিত। এ অঞ্চলের সাংস্কৃতিক বিকাশে ইনস্টিটিউটটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। কুমিল্লার প্রায় সব অনুষ্ঠান এখানেই হয়ে থাকে। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো, এখানে সচল কোনো জেনারেটর নেই। যখন বিদ্যুৎ চলে যায়, তখন যে কোনো অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়। এ নিয়ে বেশ হতাশার মধ্যে আছেন কুমিল্লার সাংস্কৃতিককর্মীরা।
২০১৩ সালের ২০ এপ্রিল বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নজরুল ইনস্টিটিউটটি উদ্বোধন করেন। তখন ১০০ কেভিএ’র নতুন জেনারেটর স্থাপন করা হয়। উদ্বোধনের দিন দুপুরের পরই সেটি বিকল হয়ে পড়ে। এরপর পাঁচ বছর হয়ে গেল; কিন্তু কোটি টাকা দামের ওই জেনারেটর মেরামত করা হয়নি। বর্তমানে জেনারেটরকক্ষে তালা ঝুলছে। এই কেন্দ্রে আবৃত্তি, সংগীতের প্রশিক্ষণ হয় নিয়মিত। অডিটরিয়াম, লাইব্রেরি, রেস্টহাউস, মহড়াকক্ষ ও প্রশিক্ষণকক্ষ রয়েছে। কিন্তু বিদ্যুৎ চলে গেলেই সাংস্কৃতিককর্মীদের পড়তে হয় বিপাকে। এ বিপাক থেকে তাদের মুক্তি দেওয়া দরকার। কুমিল্লার সংস্কৃতিকে বিকাশে দ্রুতই জেনারেটরটি মেরামত করা সময়ের দাবি।

শতাব্দী জুবায়ের
শিক্ষার্থী, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়