জেরুজালেমকে ট্রাম্পের স্বীকৃতি বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড়

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিলেও তা প্রত্যাখ্যান করেছে জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও মুসলিম দেশসহ পুরো বিশ্ব। ট্রাম্পের বিতর্কিত এ সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করেছেন খ্রিষ্টানদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিসও। স্থানীয় সময় বুধবার হোয়াইট হাউজে দেওয়া ভাষণে ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন। খবর বিবিসি, আলজাজিরা, রয়টার্স।

বুধবার আরব ও মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য মুসলিম দেশ ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তকে ‘অস্থিরতাকবলিত অঞ্চলটিতে উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে দেওয়ার পদক্ষেপ’ আখ্যায়িত করে এর নিন্দা জানিয়েছে। ফিলিস্তিন বলেছে, এ পদক্ষেপের মাধ্যমে শান্তি আলোচনার মধ্যস্থতাকারী হিসেবে ওয়াশিংটন তার নেতৃত্বদানকারী ভূমিকা জলাঞ্জলি দিয়েছে।

ইসরাইলে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ার ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা ঝুঁকির মুখে পড়বে বলে সতর্ক করে দিয়েছে জাতিসংঘ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

জেরুজালেম বিষয়ে কয়েক দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্রের অনুসৃত নীতি পাল্টে দেওয়া ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান মিত্ররা। ট্রাম্পের ‘একতরফা’ সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে ফ্রান্স। পাশাপাশি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি বজায় রাখারও আবেদন জানিয়েছে দেশটি।

ব্রিটেন বলেছে, ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্ত শান্তি উদ্যোগের ক্ষেত্রে কোনো ভূমিকা রাখবে না এবং জেরুজালেমে ইসরাইল ও ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের অংশীদারিত্ব থাকা উচিত। আর জার্মানি বলেছে, জেরুজালেমের মর্যাদা শুধু দ্বিরাষ্ট্রিক সমাধানের ভিত্তিতেই নির্ধারিত হতে পারে।

লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন বলেছেন, জেরুজালেমের বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্ত সংকট সৃষ্টি করবে এবং মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রচেষ্টার মধ্যস্থতাকারী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বাসযোগ্যতাকে ঝুঁকিতে ফেলবে।

ট্রাম্পের পদক্ষেপকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ বলে মন্তব্য করেছে তুরস্ক। ট্রাম্পের এ ‘ভুল’ সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

ট্রাম্পের পদক্ষেপকে ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাত নিরসনে জাতিসংঘের দেওয়া প্রস্তাবের লঙ্ঘন অভিহিত করে এর তীব্র নিন্দা করেছে ইরান। দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যকে অস্থিতিশীল করে ইসরাইলের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য যুদ্ধ শুরুর চেষ্টা করছে যুক্তরাষ্ট্র।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক বিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আমরা যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপের তীব্র বিরোধী, এটি পরিষ্কার করে দিন।