সুস্বাস্থ্য

টক টক : জলপাই

‘লিকুইড গোল্ড’ নামে পরিচিত জলপাই। দেখে নিন শীতকালীন ফলটির পুষ্টিগুণ কাঁচা জলপাইয়ের পুষ্টিগুণ তুলনামূলকভাবে বেশি ‘সি’, ‘এ’, ‘ই’, ‘কে’, ‘বি৬’ প্রভৃতি ভিটামিন রয়েছে জলপাইয়ে

এর আয়রন রক্তের আরবিসির কর্মশক্তি বাড়িয়ে দেয়। রক্ত চলাচলে সহায়তা করে

এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হার্ট ব্লক হতে বাধা দেয়

অ্যালার্জি প্রতিরোধে নিয়মিত জলপাই খেতে পারেন

জলপাইয়ের তেল মানবদেহ

সুস্থ-সুন্দর রাখে

জলপাইয়ের সবকিছুই উপকারী। এর খোসার কথাই ধরুন। এতে থাকা আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে

স এর পাতার রয়েছে অনেক গুণ। পাতা ছেঁচে ক্ষতস্থানে লাগালে দ্রুত শুকিয়ে যায়। বাতের ব্যথা, মুটিয়ে যাওয়া, জন্ডিস, সর্দি-কাশি প্রভৃতিতে পাতার গুঁড়ো ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন দেশে।

 

খাদ্যশক্তি

ভিটামিন এ-২০ আইইউ, ভিটামিন বি৬-০.০৩১ মিলিগ্রাম, ভিটামিন ই-৩.৮১ মিলিগ্রাম, ভিটামিন কে-১.৪ আইইউ, ক্যালরি ১৪৬ কিলো, শর্করা ৩.৮৪ গ্রাম, চিনি ০.৫৪ গ্রাম, খাদ্য আঁশ ৩.৩ গ্রাম, চর্বি ১৫.৩২ গ্রাম, আমিষ ১.০৩ গ্রাম, বিটা ক্যারোটিন ২৩১ আইইউ, থায়ামিন ০.০২১, রিবোফ্লাবিন ০.০০৭ মিলিগ্রাম, নিয়াসিন-০.২৩৭ মিলিগ্রাম, ফোলেট ৩ আইইউ, ক্যালসিয়াম ৫২ মিলিগ্রাম, আয়রন ৩.১ মিলিগ্রাম, ম্যাগনেসিয়াম ১১ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ৪ মিলিগ্রাম, পটাসিয়াম ৪২ মিলিগ্রাম।

 

 

 

সর্বশেষ..