টঙ্গীতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ৪

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: টঙ্গীতে এক ট্রেন দুর্ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এতে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা ঢাকা থেকে সারা দেশের ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। গতকাল জামালপুর থেকে ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেনটি এ দুর্ঘটনায় পড়ে।
দুর্ঘটনাস্থল ঘুরে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, প্রাথমিক তথ্যে মনে হয়েছে সিগন্যাল ম্যান সংকেত দিতে দেরি করায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে এ নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, তারা বিষয়টি তদন্ত করে দেখবে। এ ঘটনায় রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামানকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। ওই কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।
সূত্রমতে, গতকাল রোববার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকায় দুর্ঘটনা হয়। এতে চারজন নিহত ও অন্তত ২৬ যাত্রী আহত হন। ওই দুর্ঘটনার পর লাইন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, সিলেট, ময়মনসিংহ এবং বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের সঙ্গে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। পরে রিলিফ ট্রেন এসে ঢাকা থেকে আসা রেললাইন ক্লিয়ার করলে সেই পথে ট্রেন চলাচল শুরু হয় বলে টঙ্গীর স্টেশন মাস্টার হালিমুজ্জামান জানান।
এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) মো. মিয়াজাহান জানান, বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ঈশাখাঁ এক্সপ্রেস ওই দুর্ঘটনার কারণে আটকে ছিল। লাইন ক্লিয়ার হওয়ার পর বিকাল সাড়ে ৫টায় ট্রেনটি টঙ্গী অতিক্রম করে।
দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে জয়দেবপুর রেলওয়ে ফাঁড়ির এসআই রাকিবুল হক গণমাধ্যমকে জানান, ট্রেনটির পেছনের চারটি বগি লাইনচ্যুত হলেও গতির কারণে ওই অবস্থায় ট্রেনটি কয়েকশ গজ এগিয়ে যায়। একপর্যায়ে দুটি বগি কাত হয়ে যায়।
কমলাপুর রেলওয়ে থানার ওসি মো. ইয়াসিন জানান, ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার পর ছাদে থাকা যাত্রীরা লাফিয়ে পড়লে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয় এবং আরও বেশ কয়েকজন আহত হন। আহতদের মধ্যে সাতজনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মো. শাহাদাত (৩৮) নামে আরও একজনকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে মেডিক্যাল ফাঁড়ির এএসআই বাবুল মিয়া জানান।
ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি হওয়া বাকি ছয়জন হলেন বাদল (২৮), সবুজ (৪০), ইসরাফিল (১২), আলমগীর (৩২), বাদল (৫০) ও মো. শরিফ (২৮)। তাদের শরীরে বিভিন্ন স্থানে জখম রয়েছে। টঙ্গীর আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. ইরাম শাহরিয়ার জানান, ওই দুর্ঘটনায় আহত মোট ২৬ জন বিকাল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত তার হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেছেন। তাদের মধ্যে আটজনকে তিনি ঢাকা মেডিক্যালে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এদিকে ঘটনাস্থলে নিহত তিনজনের লাশ উদ্ধার করে রেল পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। তবে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহত তিনজনের পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি।