ঠাকুরগাঁও হাসপাতালে প্রতি রাতেই চুরি

শেয়ার বিজ প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও: দুর্বৃত্ত ও চোরের ভয়ে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের রোগী ও তাদের স্বজনরা। প্রতিদিন হাসপাতাল থেকে খোয়া যাচ্ছে মোবাইল ফোন ও টাকাপয়সা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।
সার্জারি বিভাগের চিকিসাৎধীন নুরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, তার দামি মোবাইল ফোন গত বুধবার রাতে চুরি হয়েছে। একই অভিযোগ সদর উপজেলার শুখানপুখূরী ইউনিয়নের লাউ থুতি উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র মাসুদ রানার। সে জানায়, তার বাবার মোবাইল ফোন হাসপাতালে চুরি হয়েছে।
জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার মাসখুরিয়া গ্রামের খাদেমুল ইসলাম জানান, ছাগল বিক্রি করে ছেলের চিকিৎসার টাকা জোগাড় করেছিলেন। সে টাকা চোরের পকেটে চলে গেছে। একই অভিযোগ হরিপুর উপজেলার গেদুরা ইউনিয়নের মন্না টলী গ্রামের ইউসুফ আলীর।
হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স আক্তারী বেগম জানান, প্রতি রাতে বিভিন্ন ওয়ার্ডে চুরির ঘটনা ঘটছে। দুষ্টু প্রকৃতির ও মাদকাসক্ত বখাটে তরুণরা চুরিসহ মেয়েদের যৌন হয়রানি করছে। রোগী ও নার্সদের দাবি অন্তত রাতে তাদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ পাহারার ব্যবস্থা করা হোক।
ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. প্রভাষ কুমার জানান, রোগীদের মোবাইল ফোন ও টাকা চুরির ঘটনা তার জানা নেই। পুলিশ সুপার মোহা. মনিরুজ্জামান জানান, তিনি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সদর থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।