ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের রেকর্ড ডেট আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের রেকর্ড ডেট আজ। সে জন্য শেয়ার লেনদেন বন্ধ থাকবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে, রেকর্ড ডেটের পরের দিন থেকে পুঁজিবাজারে শেয়ার লেনদেন স্বাভাবিক নিয়মেই চলবে।

২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরে ৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ওই সময় শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ২৮ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ৯৭ টাকা ৪১ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আগামী ২৯ মার্চ সকাল ১০টায় প্যান প্যাফিফিক সোনারগাঁও হোটেল (বলরুম), ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর দুই দশমিক ৯২ শতাংশ বা তিন টাকা ৪০ কমে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ১১৩ টাকা ১০ পয়সায়  হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১১৩ টাকা ৩০ পয়সা। দিনজুড়ে ৮২ হাজার ৭০৩টি শেয়ার মোট ২৮৬ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৯৫ লাখ ছয় হাজার টাকা। দিনজুড়ে শেয়ারদর সর্বনি¤œ ১১৩ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১১৭ টাকা ৬০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ৯৯ টাকা থেকে ১৭৮ টাকা ২০ পয়সায় ওঠানামা করে।

২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে, যা আগের বছরের চেয়ে ১০ শতাংশ কম। এ সময় ইপিএস হয়েছে আট টাকা ৮১ পয়সা এবং এনএভি ৮৮ টাকা ৩০ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে ১৫ টাকা ১০ পয়সা ও ৮৩ টাকা ৭৭ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ১৭৬ কোটি ২৬ লাখ ১০ হাজার টাকা, যা আগের বছর ছিল ৩০২ কোটি দুই লাখ ৮০ হাজার টাকা।

কোম্পানিটি ২০০১ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) ইপিএস হয়েছে তিন টাকা ১৬ পয়সা এবং কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ৬৩ কোটি ২৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা। দ্বিতীয় প্রান্তিকে ইপিএস ছিল চার টাকা ১৮ পয়সা এবং কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ৮৩ কোটি ৬৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা প্রথম প্রান্তিকে ইপিএস ছিল দুই টাকা ৯১ পয়সা এবং মুনাফা করেছে ৫৮ কোটি ২৫ লাখ টাকা।

৪০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ২০০ কোটি টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ এক হাজার ৫০৪ কোটি ৯১ লাখ টাকা। কোম্পানির ২০ কোটি শেয়ার রয়েছে।