ডিএসইতে লেনদেন ও সূচক নিম্নমুখী

নিজস্ব প্রতিবেদক: সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। গতকাল সূচক কমার পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর। অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে।
গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স সাত দশমিক ১৫ পয়েন্ট বা দশমিক ১২ শতাংশ কমে পাঁচ হাজার ৮০৬ দশমিক ১৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক পাঁচ দশমিক ১৯ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৮ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৪৮ দশমিক ২৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। আর ডিএস৩০ সূচক সাত দশমিক ২১ পয়েন্ট বা দশমিক ৩২ শতাংশ কমে দুই হাজার ১৭৯ দশমিক ৮৫ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন কমে চার লাখ চার হাজার ৭১০ কোটি ২০ লাখ ১৭ হাজার টাকা হয়। ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় ৪৮৫ কোটি ৬৫ লাখ ৮১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের দিন লেনদেন হয় ৪৯২ কোটি ৪১ লাখ ১৯ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ছয় কোটি ৭৬ লাখ টাকা। এদিন ১২ কোটি ২১ লাখ ৮১ হাজার ৭৮০টি শেয়ার এক লাখ ১২ হাজার ৫৫১ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৩৬টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৩০টির, কমেছে ১৫২টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৫৪টির দর।
চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৪৯ দশমিক ৩৯ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ৭৭৬ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৭৭ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট কমে ১৭ হাজার ৮৩৮ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৩৯টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮২টির, কমেছে ১৩১টির ও অপরিবর্তিত ছিল ২৬টির দর। সিএসইতে এদিন ৩৬ কোটি ৫০ লাখ ৫০ হাজার ৯১২ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়।