কোম্পানি সংবাদ

ডিএসইতে সূচক কমলেও দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ১৪.৯০%

সপ্তাহের ব্যবধান

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে সব সূচক নেতিবাচক গতিতে ছিল। বাজার মূলধন কমেছে দশমিক ৭২ শতাংশ। সেইসঙ্গে কমেছে বেশিরভাগ শেয়ারদর। বিক্রির চাপে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ১৪ দশমিক ৯০ শতাংশ। তবে মোট লেনদেন কমেছে, কারণ গত সপ্তাহে লেনদেন হয় চার কার্যদিবস। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল পাঁচ কার্যদিবস। লেনদেন হওয়া চার কার্যদিবসের মধ্যে তিন দিন সূচকের পতন হয়। বেড়েছে মাত্র এক দিন। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।
সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৪৯ দশমিক ২৬ পয়েন্ট বা দশমিক ৯১ শতাংশ কমে পাঁচ হাজার ৩৮০ দশমিক ৭৯ পয়েন্টে স্থির হয়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ১২ দশমিক ৪৩ পয়েন্ট বা এক শতাংশ কমে এক হাজার ২৩৩ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএস৩০ সূচক ১৪ দশমিক ৮৩ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৭ শতাংশ কমে এক হাজার ৯১০ দশমিক ০৮ পয়েন্টে স্থির হয়। মোট ৩৫৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৫টির, কমেছে ১৬৬টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৩ কোম্পানির শেয়ারদর। লেনদেন হয়নি একটির। দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৪৮৬ কোটি ৮৬ লাখ ৭৯ হাজার ৭৮৩ টাকা। আগের সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৪২৩ কোটি ৭৪ লাখ ৭৩ হাজার ৬৭১ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ৬৩ কোটি ১২ লাখ টাকা বা ১৪ দশমিক ৯০ শতাংশ।
গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট টার্নওভার বা লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় এক হাজার ৯৪৭ কোটি ৪৭ লাখ ১৯ হাজার ১৩৩ টাকা। আগের সপ্তাহে যা ছিল দুই হাজার ১১৮ কোটি ৭৩ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার কমেছে ১৭১ কোটি ২৬ লাখ টাকা বা আট দশমিক ০৮ শতাংশ।
ডিএসইতে গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার বাজার মূলধন ছিল চার লাখ ৪৫৭ কোটি ৮২ লাখ ১০ হাজার ৩৪৮ টাকা। শেষ কার্যদিবসে যার পরিমাণ ছিল তিন লাখ ৯৭ হাজার ৫৬৪ কোটি ৩৯ লাখ ৪২ হাজার টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন কমেছে দশমিক ৭২ শতাংশ বা দুই হাজার ৮৯৩ কোটি টাকা।
গত সপ্তাহে ডিএসইর টপ টেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে প্রাইম ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির দর ৪২ দশমিক ৬২ শতাংশ বেড়েছে। তালিকায় এর পরের অবস্থানগুলোতে থাকা ফিনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর ২৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ ও সিএপিএম আইবিবিএল ইসলামিক মিউচুয়াল ফান্ডের দর ২৪ দশমিক ৬৮ শতাংশ বেড়েছে। ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের দর ২০ দশমিক ০৭ শতাংশ এবং ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের দর ১৬ দশমিক ০৪ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া সিএপিএম বিডিবিএল মিউচুয়াল ফান্ডের দর ১৫ দশমিক ৯৪ শতাংশ, পিএইচপি ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর ১৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ, এইচ আর টেক্সটাইল লিমিটেডের দর ১৪ দশমিক ২৯ শতাংশ, মেট্রো স্পিনিংয়ের দর ১৪ দশমিক ১০ শতাংশ ও এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ্ ফান্ডের দর ১৪ দশমিক ০৮ শতাংশ বেড়েছে।
অন্যদিকে ১৩ দশমিক ০৪ শতাংশ কমে সাপ্তাহিক দরপতনের শীর্ষে অবস্থান করে পিপলস লিজিং ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড। ফার্স্ট ফাইন্যান্স লিমিটেডের দর ১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ, মেঘনা কনডেন্সড মিল্কের দর ১১ দশমিক ১১ শতাংশ, এমারাল্ড অয়েলের দর ১০ দশমিক ৫৩ শতাংশ, কে অ্যান্ড কিউ’র দর ৯ দশমিক ৮৫ শতাংশ, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লসের দর ৯ দশমিক ৭৩ শতাংশ, মুন্নু জুট স্টাফলার্সের দর ৯ দশমিক ১৪ শতাংশ, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের দর ৯ দশমিক ০৯ শতাংশ, মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজের দর আট দশমিক ২০ শতাংশ ও বিচ হ্যাচারির দর সাত দশমিক ৬০ শতাংশ কমেছে।
ডিএসইতে টার্নওভারের দিক থেকে শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো রানার অটোমোবাইল, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন ও ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লস, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স, সিঙ্গার বাংলাদেশ, জেএমআই সিরিঞ্জ, জেনেক্স ইনফোসিস ও বসুন্ধরা পেপার মিলস।
অন্যদিকে দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৩০২টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৮টির, কমেছে ১৪০টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৪টির দর।
সিএসইতে গত সপ্তাহে সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স কমেছে এক শতাংশ। এছাড়া সিএএসপিআই সূচক কমেছে এক দশমিক ০৪ শতাংশ, সিএসই৫০ সূচক কমেছে এক দশমিক ৫৩ শতাংশ, সিএসআই সূচক এক দশমিক ০৪ শতাংশ ও সিএসই৩০ সূচক এক দশমিক ০৬ শতাংশ কমেছে।
সিএসইতে গত সপ্তাহে টার্নওভারের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৪৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ৩৭১ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। লেনদেন কমেছে ১২৮ কোটি ২৪ লাখ টাকা।
৩৪ দশমিক ৩৭ শতাংশ বেড়ে সিএসইতে সাপ্তাহিক টপ টেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে প্রাইম ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড। ফিনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর ২৭ দশমিক ৪১ শতাংশ ও সিএপিএম আইবিবিএল ইসলামিক মিউচুয়াল ফান্ডের দর ১৮ দশমিক ১৮ শতাংশ বেড়েছে। এর পরের অবস্থানগুলোতে ছিল এইচআর টেক্সটাইল, মেট্রো স্পিনিং, আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ড মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ান, ফার্স্ট জনতা ব্যাংক মিউচুয়াল ফান্ড, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, ফার্স্ট বিডি ফিক্সড ইনকাম ফান্ড ও প্রাইম ব্যাংক ফার্স্ট আইসিবি এএমসিএল মিউচুয়াল ফান্ড।
অন্যদিকে টপ টেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে এমারাল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ, লিবরা ইনফিউশন, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লস, তাল্লু স্পিনিং, বিডি ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, এপেক্স ফুটওয়্যার, পিপলস লিজিং, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক ও আরামিট সিমেন্ট।
সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো গ্রামীণফোন লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, উত্তরা ব্যাংক, বিএসআরএম স্টিল, ডরিন পাওয়ার, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ম্যারিকো বাংলাদেশ, আরএকে সিরামিকস, বসুন্ধরা পেপার মিলস ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক।

সর্বশেষ..