ডিএসই’র সূচকে নতুন রেকর্ড: লেনদেন ছাড়িয়েছে হাজার কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের পুঁজিবাজারে ঈদের ছুটির পরও উত্থান ধারা অব্যাহত আছে। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচকের নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি লেনদেনও হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। এদিন ডিএসইর অন্যান্য সূচকও ঊর্ধ্বমুখী ছিল। পাশাপাশি বাজার মূলধনও বেড়েছে। অপর বাজার সিএসইতে ইতিবাচক ধারা লক্ষ করা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৪৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৩ শতাংশ বেড়ে ছয় হাজার ৮৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। এটি সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক চার দশমিক ৮৩ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৬ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩৩৩ দশমিক ৭৮ পয়েন্টে আর ডিএস৩০ সূচক ১২ দশমিক শূন্য ৮ পয়েন্ট বা দশমিক ৫৬ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ১৫৭ পয়েন্টে অবস্থান করে।

গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে চার লাখ তিন হাজার ২৯১ কোটি ৪৫ লাখ টাকা।

ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় এক হাজার ৪৯ কোটি ৫৩ লাখ টাকার। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৬৬৭ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে প্রায় ৩৮২ কোটি টাকা। এদিন ৩৪ কোটি ৫৩ লাখ ৩১১টি শেয়ার এক লাখ ৫২ হাজার ৩৬৮ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩২১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৩টির, কমেছে ১১৮টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৩০টির দর।

টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের। প্রতিষ্ঠানটির ৭২ লাখ ১২ হাজার ৬৬৮টি শেয়ার ৪৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকায় লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর আগের দিনের চেয়ে দশমিক ৯৬ শতাংশ কমেছে। সর্বশেষ কোম্পানির শেয়ার ৬২ টাকা ১০ পয়সায় বেচাকেনা হয়। এর পরের অবস্থানগুলোয় ছিল ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, আইএফআইসি ব্যাংক, ফরচুন শুজ, ইউসিবি ব্যাংক, ফু-ওয়াং সিরামিক, শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, ফুড, বিবিএস কেবল্স, প্রিমিয়ার ব্যাংক।

সবচেয়ে বেশিসংখ্যক শেয়ার লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের। কোম্পানিটির দুই কোটি ৯১ লাখ ৫৫ হাজার ৯১৪টি শেয়ার ৩৮ কোটি ৯২ লাখ টাকায় লেনদেন হয়েছে। এর পরের অবস্থানগুলোয় ছিল আইএফআইসি ব্যাংক, সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইল, প্রিমিয়ার ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, ইউসিবি ব্যাংক, শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক, ফু-ওয়াং সিরামিক ও এবি ব্যাংক।

এদিকে ৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ বেড়েছে এটলাস বাংলাদেশ লিমিটেডের। এরপরে ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ বেড়েছে মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজের। স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের দর বেড়েছে ৯ দশমিক ৩৫ শতাংশ, ৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ দর বেড়েছে হাক্কানি পাল্প অ্যান্ড পেপার মিলস লিমিটেডের ও এপ্রেক্স স্পিনিংয়ের দর বেড়েছে ৯ দশমিক ১২ শতাংশ।

অন্যদিকে কেঅ্যান্ডকিউ (বাংলাদেশ) লিমিটেডের দর ছয় দশমিক ৯৯ শতাংশ কমেছে। এছাড়া নর্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের দর কমেছে তিন দশমিক ৩৭ শতাংশ। দর কমার তালিকায় আরও রয়েছে ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, ফারইস্ট ফাইন্যান্স, সমতা লেদার ও মডার্র্ন ডায়িং।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ১০৩ পয়েন্ট বেড়ে ১১ হাজার ৪২১ পয়েন্টে, সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৭০ দশমিক ৪২ পয়েন্ট বেড়ে ১৮ হাজার ৯০০ পয়েন্টে অবস্থান করে।

গতকাল দিনজুড়ে সিএসইতে ২৪৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে ১৪৪টির দর বেড়েছে, কমেছে ৮৩টির ও অপরিবর্তিত ছিল ২১টির দর।

এদিন ৫৯ কোটি ৫৯ লাখ ৭৩ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড। কোম্পানিটির ৯ কোটি ২৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপর আইএফআইসি ব্যাংকের দুই কোটি ৯ লাখ টাকার, ফু-ওয়াং সিরামিকের এক কোটি ৫৯ লাখ, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের এক কোটি ৫১ লাখ, এক্সিম ব্যাংকের এক কোটি ৪৮ লাখ, ফরচুন শুজের এক কোটি ৩৫ লাখ, এবি ব্যাংকের এক কোটি ৩৫ লাখ, বিবিএস কেবল্সের এক কোটি ২০ লাখ টাকার ও প্রিমিয়ার ব্যাংকের এক কোটি তিন লাখ টাকার এবং জেনারেশন নেক্সটের ৯৪ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়েছে।