কোম্পানি সংবাদ

ঢাকা ব্যাংকের ঋণমান দীর্ঘ মেয়াদে ‘এএ’

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্যাংক খাতের কোম্পানি ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের ঋণমান অবস্থান (ক্রেডিট রেটিং) নির্ণয় করেছে ইমার্জিং ক্রেডিট রেটিং লিমিটেড (ইসিআরএল)। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
তথ্যমতে, কোম্পানিটি দীর্ঘমেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘এএ’ ও স্বল্প মেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘এসটি-২’। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্যের আলোকে এ রেটিং সম্পন্ন হয়েছে।
এদিকে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর ডিএসইতে শূন্য দশমিক ৭৬ শতাংশ বা ১০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১৩ টাকা ২০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৩ টাকা ৩০ পয়সা। দিনজুড়ে তিন লাখ ৭৬ হাজার ৯৬৪টি শেয়ার মোট ১০৯ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৪৯ লাখ ৮৮ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনিন্ম ১৩ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১৩ টাকা ৩০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ১২ টাকা ৩০ পয়সা থেকে ১৯ টাকা ৫০ পয়সায় হাতবদল হয়।
২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের জন্য পাঁচ শতাংশ নগদ ও পাঁচ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ওই সময় শেয়ারপ্রতি আয় করেছে এক টাকা ৭৩ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ২৩ পয়সা। এর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরে সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে দুই টাকা ২৩ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৯১ পয়সা।
এর আগে ২০১৬ সালের সমাপ্ত হিসাববছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ ও পাঁচ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। ওই সময় শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে দুই টাকা ২৬ পয়সা এবং এনএভি ২১ টাকা ৬৮ পয়সা।
কোম্পানিটি ২০০০ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। এক হাজার কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৮১২ কোটি ৫৮ লাখ ৩০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৭৭০ কোটি ২০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। কোম্পানির ৮১ কোটি ২৫ লাখ ৮২ হাজার ৬৮৫টি শেয়ার রয়েছে।
তথ্যমতে, কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ৪০ দশমিক ১৭ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ১১ দশমিক ৯২ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে ৪৭ দশমিক ৯১ শতাংশ শেয়ার।

সর্বশেষ..