সারা বাংলা

তারাকান্দায় সংরক্ষিত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার ঢাকুয়া ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পারভীন আক্তারের বিরুদ্ধে দরিদ্র, হতদরিদ্র ও বয়স্ক নারী-পুরুষকে ভিজিডি, বয়স্ক ভাতা কার্ড, টিউবওয়েল এবং ঘর দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, ঢাকুয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পারভীন আক্তার তার স্বামী হেলাল উদ্দিন আকন্দের সহযোগিতায় ওই তিনটি ওয়ার্ডের দরিদ্র, হতদরিদ্র নারী-পুরুষকে দরিদ্র, হতদরিদ্র ও বয়স্ক নারী পুরুষকে ভিজিডি, বয়স্ক ভাতা কার্ড, টিউবওয়েল এবং ঘর দেওয়ার মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে জনপ্রতি পাঁচ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নেন।
ইউনিয়নের কুশিয়াধারা গ্রামের হতদরিদ্র বৃদ্ধ নজরুল ইসলাম জানান, এক বছর আগে ইউপি সদস্য পারভীন আক্তারের বাড়িতে বয়স্ক ভাতা কার্ডের জন্য গেলে তার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। পরে ইউপি সদস্যের স্বামী হেলাল উদ্দিনের মধ্যস্থতায় একটি গরুর ছোট বাছুর বিক্রি করে ছয় হাজার টাকা দেন। কিন্তু এখনও বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি তিনি। টাকা ফেরত চাইলে পারভীন আক্তার ও তার স্বামী হেলাল উদ্দিন তাকে নানাভাবে হুমকি দেন।
একই গ্রামের দরিদ্র আছিয়া খাতুনের স্বামী দিনমজুর মজিবর রহমান জানান, ইউপি সদস্য পারভীন আক্তার তার স্ত্রীকে মাসে ৩০ কেজি চালের কার্ড করে দেওয়ার নামে ছয় হাজার টাকা নেন। কিন্তু টাকা নেওয়ার এতদিন হয়ে গেলেও কার্ড করে দেওয়ার কোনো খবর নেই। দিই-দিচ্ছি বলে সময় পার করছেন।
কুশিয়াধারা গ্রামের ফিরোজা বেগম, ছালেমা খাতুন ও বাদ্রাকান্দা গ্রামের সোহাগ মিয়া, আবদুল বারেক, শরাফ উদ্দিন জানান, পারভীন আক্তার এবং তার স্বামী হেলাল উদ্দিন তাদের কাছ থেকে ভিজিডি চালের কার্ড, টিউবওয়েল ও ঘর দেওয়ার কথা বলে জনপ্রতি ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তার পিছু পিছু ঘুরেও এখনও কার্ড হয়নি।
এ ব্যাপারে পারভীন আক্তারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার স্বামী হেলাল উদ্দিন আকন্দ জানান, এলাকার মানুষকে সহযোগিতা করার জন্য তাদের কাছ থেকে খরচ বাবদ কিছু টাকা নিয়েছেন। কাজ না হওয়ায় টাকা ফেরত দেবেন বলেও জানান তিনি।
ইউপি চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন মণ্ডল জানান, ভুক্তভোগী দরিদ্র পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি শুনেছেন। পরে ইউনিয়ন পরিষদের সভায় বিষয়টি আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সর্বশেষ..