প্রচ্ছদ প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

দীর্ঘদিন পর গতি ফিরেছে মিউচুয়াল ফান্ড খাতে

রুবাইয়াত রিক্তা: পুঁজিবাজারে গতকাল সূচকের নেতিবাচক গতিতে লেনদেন হয়েছে। তবে গতকাল পতনের হার তুলনামূলক কম ছিল। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচকের প্রায় পাঁচ পয়েন্ট পতন হয়। লেনদেন আগের দিনের তুলনায় সামান্য বেড়েছে। শেয়ারের দরবৃদ্ধি ও কমার হার প্রায় সমান সমান ছিল। দীর্ঘদিন পর গতকাল মিউচুয়াল ফান্ড খাতে গতি ফিরতে দেখা গেছে। এ খাতের কোনো ফান্ড দরপতনে ছিল না। তিনটির দর অপরিবর্তিত এবং বাকি ৩৪ ফান্ডের দর বেড়েছে। দুই শতাংশ বেড়ে মিউচুয়াল ফান্ড খাতে লেনদেন হয় মোট লেনদেনের তিন শতাংশ। দরবৃদ্ধির শীর্ষ ১০ কোম্পানির তালিকায় ৮০ শতাংশই ছিল মিউচুয়াল ফান্ডের দখলে।
গতকাল লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বস্ত্র খাত। এ খাতে লেনদেন হয় মোট লেনদেনের ১৫ শতাংশ বা সাড়ে ৫৩ কোটি টাকা। দর বেড়েছে ৫৪ শতাংশ কোম্পানির। আরএন স্পিনিংয়ের সাড়ে ৯ কোটি টাকা লেনদেন হলেও ৩০ পয়সা দরপতন হয়। জেনেক্স ইনফোসিসের সাড়ে আট কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে দুই টাকা ৮০ পয়সা। এরপর বিমা খাতে লেনদেন হয় ১৩ শতাংশ। এ খাতে ২৫ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন হয় ১২ শতাংশ। এ খাতে ৩৭ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। প্রায় সাড়ে আট শতাংশ বেড়ে জেএমআই সিরিঞ্জ দরবৃদ্ধির শীর্ষদশের মধ্যে উঠে আসে। কোম্পানিটির প্রায় ১৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। প্রকৌশল খাতে লেনদেন হয় ১১ শতাংশ। এ খাতে ৩৪ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। সাড়ে সাত শতাংশ বেড়ে ন্যাশনাল পলিমার দরবৃদ্ধিতে সপ্তম অবস্থানে উঠে আসে। কোম্পানিটির প্রায় ১০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসের তুলনায় দুই শতাংশ বেড়ে ব্যাংক খাতে লেনদেন হয় ১০ শতাংশ। এ খাতে মাত্র ৩০ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। ব্র্যাক ব্যাংকের সোয়া ৯ কোটি টাকা লেনদেন হলেও দর অপরিবর্তিত ছিল। জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে লেনদেন হয় আট শতাংশ। দর বেড়েছে ৫২ শতাংশ কোম্পানির। ইউনাইটেড পাওয়ারের প্রায় ১৬ কোটি টাকা লেনদেন হয়ে শীর্ষে উঠে আসে কোম্পানিটি। দর বেড়েছে এক টাকা ৪০ পয়সা। এছাড়া বিবিধ খাতে ৭৭ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের প্রায় সাড়ে ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে এক টাকা। সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজের সোয়া আট কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে দেড় টাকা। শতভাগ ইতিবাচক ছিল পাট এবং কাগজ ও মুদ্রণ খাত। অন্যদিকে টেলিযোগাযোগ, সেবা ও আবাসন, সিরামিক খাত শতভাগ নেতিবাচক ছিল।

 

ট্যাগ »

সর্বশেষ..