হোম প্রচ্ছদ দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে বিএসইসি: সাত দিনের মধ্যে ওয়ান স্টপ সেবা দিতে হবে

দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে বিএসইসি: সাত দিনের মধ্যে ওয়ান স্টপ সেবা দিতে হবে


Warning: date() expects parameter 2 to be long, string given in /home/sharebiz/public_html/wp-content/themes/Newsmag/includes/wp_booster/td_module_single_base.php on line 290

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জকে সাত দিনের মধ্যে বিনিয়োগকারীদের সহযোগিতার জন্য পরামর্শ ডেস্ক ও ওয়ান স্টপ সার্ভিস প্রদানের নির্দেশ দিয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সরকারের ‘এজ অব ডুয়িং বিজনেস’ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য সংস্থাটি এ উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, গত বুধবার কমিশনের  নির্দেশক্রমে বিএসইসির উপপরিচালক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশ দেওয়া হয়। ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, এজ অব ডুয়িং বিজনেস বিষয়ে কমিশনের কর্মপরিকল্পনায় বিনিয়োগকারীদের সেবা প্রদানের লক্ষ্যে স্টক এক্সচেঞ্জদ্বয়কে পরামর্শ ডেস্ক ও ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

জানা গেছে, প্রতিবছর বিশ্বব্যাংক ব্যবসায় পরিবেশ সূচকের (ডুয়িং বিজনেস ইনডেক্স) যে তালিকা তৈরি করে, সে তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১০০-এর নিচে নামিয়ে আনতে চায় সরকার। আগামী ২০২১ সালের মধ্যেই তা করার চেষ্টা করা হবে।

বিশ্বব্যাংক গত বছর ব্যবসায় পরিবেশের যে তালিকা করেছে, তাতে ১৮৯টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৭৬তম। ২০২১ সালের মধ্যে ১০০-এর নিচে নামিয়ে আনতে হলে হাতে সময় আছে আর মাত্র পাঁচ বছর। এ সময়ের মধ্যে কিভাবে ব্যবসা পরিবেশ সূচকে বাংলাদেশের অবস্থার উন্নতি করা যায়, কোথায় কোথায় বাধা রয়েছে এবং তা কীভাবে সমাধান করা যায়, তা নিয়ে পরিকলল্পনা করছে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)।

বিশ্বব্যাংকের ব্যবসা পরিবেশ সহজীকরণ বা ডুয়িং বিজনেস সূচকে আগামী পাঁচ বছরে বাংলাদেশকে এক অঙ্কের ঘরে (১০০-এর নিচে) আনতে মহাপরিকল্পনার অংশ হিসেবে ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালুরও উদ্যোগ নিয়েছে বিডা। এ প্রসঙ্গে বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম বলেন, ব্যবসা শুরুর ক্ষেত্রে অনেক বেশি সময় লাগে। এরপর জমি অধিগ্রহণ, পরিবেশের ছাড়পত্র পেতে হয়রানি, গ্যাস-বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়াসহ ১০ ধরনের সমস্যায় পড়তে হয় একজন ব্যবসায়ী হওয়ার জন্য। এখন থেকে ব্যবসা শুরু করতে একজন ব্যবসায়ীর মাত্র সাত দিন সময় লাগবে। আগে সাড়ে ১৯ দিন সময় লাগত। অবকাঠামো তৈরির অনুমোদন পেতে আগে যেখানে ২৭৮ দিন লাগত, এখন সেখানে ৬০ দিন সময় লাগবে। বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে এখন সময় লাগবে মাত্র ২৮ দিন। আগে এর জন্য সময় ব্যয় করতে হতো ৪০৪ দিন। এখন থেকে ব্যবসা শুরুর জন্য স্থাবর সম্পদের দলিল করে নামজারি করতে অল্প কয়েক দিন লাগবে। ব্যাংকঋণ পাওয়ার জন্য সিআইবি প্রতিবেদন পাওয়া যাবে। একই সঙ্গে মিলবে ব্যাংকঋণও। সংখ্যালঘুদের বিনিয়োগ রক্ষা করা হবে। সীমান্ত বাণিজ্য আরও সহজ করা হবে। আইনি জটিলতা কমানোর জন্য এ বিষয়ে আলাদা বেঞ্চ, হাইকোর্ট ডিভিশন গঠন করা হবে। আর এ বিষয়ে প্রতিবেদন ওয়েবসাইটে দিয়ে তা জনগণকে অবহিত করার ব্যবস্থা করতে হবে। এসব করার পাশাপাশি ব্যবসা শুরু ও বর্ধিত করার জন্য ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করারও ব্যবস্থা নিয়েছে বিডা।