বাণিজ্য সংবাদ

নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নে ভ্যাট পশ্চিমে প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, ঢাকা পশ্চিম ইনহাউজ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে। গতকাল কমিশনারেটের সম্মেলন কক্ষে ৫০ ভ্যাট কর্মকর্তা ও ৫০ ব্যবসায়ীকে নিয়ে এ আয়োজন করা হয়। প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন এনবিআরের ভ্যাটনীতির সদস্য ড. আবদুল মান্নান শিকদার। সভাপতিত্ব করেন ঢাকা পশ্চিমের কমিশনার ড. মইনুল খান।
অনুষ্ঠানে এনবিআরের সদস্য আবদুল মান্নান শিকদার বলেন, নতুন আইন ব্যসায়ীদের সব দাবি মেনে প্রণয়ন করা হয়েছে। এখন ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে এ আইন বাস্তবায়ন করতে হবে। দেশের উন্নয়নে অর্থের জোগান দিতে ভ্যাটের আধুনিয়নের কোনো বিকল্প ছিল না। তাই এর সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে রাজস্ব আহরণ গতিশীল করতে হবে। তিনি আরও বলেন, যে কোনো নতুন কিছু করতে গেলে চ্যালেঞ্জ থাকবে। তবে দেশের প্রয়োজনে সর্বজনবিদিত কর্মকৌশল প্রয়োগ করে তা মোকাবিলা করতে হবে। তিনি এ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা কামনা করেন।
সভাপতির বক্তব্যে কমিশনার ড. মইনুল খান বলেন, ১৯৯১ সালের আইন বর্তমানে অনেকটা অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েছিল। নতুন বাস্তবতায় এবং যুগোপযোগী করার জন্য ভ্যাট আইনকে নতুনভাবে প্রণয়ন করা অপরিহার্য ছিল। এই নতুন আইনে ব্যবসায়ীদের হয়রানি কমবে এবং রাজস্ব আহরণে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়বে। আগামী দিনের রাজস্ব আহরণের বড় চাহিদা মেটাবে ভ্যাট। নতুন আইন বাস্তবায়ন নিয়ে কোনো কোনো মহলে কিছু সংশয় ও অস্পষ্ট ধারণা আছে। তবে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে এ আইন সফলভাবে বাস্তবায়ন সম্ভব। আজকের এই প্রশিক্ষণ ভ্যাট ও ব্যবসায়ীদের মাঝে পারস্পরিক সমঝোতা বৃদ্ধি করবে।
ভ্যাট এক্সপার্ট একেএম মাহবুবুর রহমান ও ভ্যাট অনলাইনের ওমর মুবিন প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে নতুন ভ্যাট আইন সম্পর্কে ভীতি, অস্পষ্টতা ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। অনুষ্ঠান শেষে অংশগ্রহণকারী ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের নানা প্রশ্নের জবাব দেন ড. মইনুল খান। তিনি আশা করেন, ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে এ নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নের সফলতা পাওয়া যাবে।

সর্বশেষ..