নাগরিকত্ব মিলল গুহায় আটকে পড়া তিন শিশু ও কোচের

শেয়ার বিজ ডেস্ক: গত মাসে থাইল্যান্ডের গুহা থেকে উদ্ধার করা ফুটবল দলে কিশোরদের তিন সদস্য ও তাদের কোচকে নাগরিকত্ব দিয়েছে দেশটির সরকার। বুধবার উত্তরাঞ্চলীয় চিয়াং রাই প্রদেশের মায়ে সাই জেলায় আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের হাতে থাইল্যান্ডের নাগরিকত্বের কার্ড তুলে দেন জেলার প্রধান কর্মকর্তা সোমসাক কানাকাম। খবর বিবিসি।
কিশোর ফুটবল দলটিথাম লুয়াং গুহায় আটকা পড়ার পর জানা যায়, দলটির তিন সদস্য ডুল, মার্ক ও টি এবং তাদের কোচ আপল চান্টায়ংয়ের নাগরিকত্ব নেই। থাইল্যান্ডে বসবাসকারী প্রায় চার লাখ ৮০ হাজার লোকের নাগরিকত্ব নেই। তারা শরণার্থী হিসেবে রয়েছেন। এ খবর চাউর হলে তাদের নাগরিকত্বের আবেদন গ্রহণ করার বিষয়ে জনমত তৈরি হয়। কিশোর দলটির ওই তিন সদস্যের জš§ থাইল্যান্ডে বলেও জানা যায়। এরপরই তাদের নাগরিকত্ব দেওয়া হলো।
২৩ জুন কিশোর ফুটবল দলটির ১২ সদস্য ও তাদের কোচ থাম লুয়াং গুহায় ঘুরতে গিয়ে আটকা পড়ে। তারা গুহার ভেতরে থাকার সময় প্রবল বৃষ্টি ও বন্যার কারণে গুহার প্রবেশ পথ বন্ধ হয়ে যায়। এর নয়দিন পর গুহার অনেকটা ভেতের দুই ব্রিটিশ ডুবুরি তাদের সন্ধান পান। তারও ছয় দিন পর গুহা থেকে প্রতমে কয়েকজন বের করে আনা সম্ভব হয়।
১৮ দিন পর ১০ জুলাই সবাইকে উদ্ধার করে গুহার বাইরে আনার পর এক রুদ্ধশ্বাস অপেক্ষার অবসান হয়। পুরো সময়টিতে গুহায় আটকা পড়া ওই কিশোরদের নিরাপদ রাখার জন্য তাদের কোচ একাপল চান্তাওয়ং ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হন। থাইল্যান্ডে বসবাস করা রাষ্ট্রহীন শরণার্থীদের মধ্যে থাইল্যান্ড, মিয়ানমার, লাওস ও চীনের সীমান্ত অঞ্চলে বসবাস করা বিভিন্ন যাযাবর পাহাড়ি জনগোষ্ঠী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী আছে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।