হোম আন্তর্জাতিক পরমাণু বিজ্ঞানীদের নিয়ে কিমের ভোজসভা

পরমাণু বিজ্ঞানীদের নিয়ে কিমের ভোজসভা


Warning: date() expects parameter 2 to be long, string given in /home/sharebiz/public_html/wp-content/themes/Newsmag/includes/wp_booster/td_module_single_base.php on line 290
North Korean leader Kim Jong Un reacts during a celebration for nuclear scientists and engineers who contributed to a hydrogen bomb test, in this undated photo released by North Korea's Korean Central News Agency (KCNA) in Pyongyang on September 10, 2017. KCNA via REUTERS

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বিশাল আয়োজন করে সপ্তাহখানেক আগে চালানো ষষ্ঠ ও সর্ববৃহৎ পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদদের অভিনন্দন জানিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উন। গতকাল রোববার দেশটির রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ উদযাপনের খবর ও ছবি প্রকাশ করে। খবর রয়টার্স।

গত শনিবার দেশটির ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এদিন নানা আয়োজনে ছুটি উদযাপন করেছেন উত্তর কোরিয়রা।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনা আরও বাড়াতে উত্তর কোরিয়া আরেকটি আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে যাচ্ছে বলে গত সপ্তাহজুড়ে হুঁশিয়ার করে গেছে দক্ষিণ কোরিয়া। পিয়ংইয়ংয়ের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা চেয়ে গত শুক্রবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি খসড়া প্রস্তাব জমা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটির জন্য নিরাপত্তা পরিষদকে আজ সোমবার একটি জরুরি বৈঠক ডাকতে বলেছে ওয়াশিংটন।

কেসিএনএ জানায়, গতকাল সফল পরীক্ষা উপলক্ষে এক ভোজসভার আয়োজন করেন কিম, যেখানে পরমাণু বিজ্ঞানী এবং সামরিক বাহিনীর উচ্চপদস্থ ব্যক্তি ও পার্টির শীর্ষ কর্মকর্তাদের অভিনন্দিত করা হয়। কবে এ ভোজসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে তা জানায়নি কেসিএনএ। বিশ্লেষকদের ধারণা গত শনিবার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনই এ উদযাপন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কেসিএনএ’র প্রকাশিত ছবিতে পিয়ংইয়ংয়ের পিপলস থিয়েটারে হাস্যোজ্জ্বল কিমের সঙ্গে উল্লাসে মাততে দেখা গেছে উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ দুই বিজ্ঞানীকে। তাদের মধ্যে রি হং সপ হলেন দেশটির নিউক্লিয়ার উয়েপন ইনস্টিটিউটের প্রধান। আর হং সুং মু ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টি অব কোরিয়ার মিনেশান ইন্ডাস্ট্রি ডিপার্টমেন্টের উপ-পরিচালক। উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক উচ্চাকাক্সক্ষা পূরণে তৎপর এ দুই বিজ্ঞানীকে আগেই কালো তালিকাভুক্ত করেছে জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া।

পিয়ংইয়ং বলছে, গত সপ্তাহে তাদের চালানো পরীক্ষাটি ছিল উন্নত প্রযুক্তির হাইড্রোজেন বোমার। এটি হাইড্রোজেন বোমা কি না সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে না পারলেও পশ্চিমা বিশেষজ্ঞদের ধারণা, উত্তর কোরিয়া হাইড্রোজেন বোমা তৈরি করতে পেরেছে বা এর কাছাকাছি পৌঁছে গেছে।

হাইড্রোজেন বোমার সফল পরীক্ষা চালিয়ে বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদরা জাতির ইতিহাসে এক মহান ঘটনার জš§ দিয়েছেনÑপ্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনটাই বলে কেসিএনএ।

প্রেসিডেন্ট কিম তার ভাষণে পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের অভিনন্দিত করে বলেছেন, পারমাণবিক শক্তিধর দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য অর্জনে বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদরা ‘সামনে থেকে নেতৃত্ব’ দিচ্ছেন।

সম্প্রতি হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষা ছিল কোরিয়ার জনগণের এক বিরাট বিজয়, সংকটের মুহূর্তে কোমর বেঁধে রক্তের দামে তারা এটি অর্জন করেছে বলে কিমকে উদ্ধৃত করে জানায় উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত সংবাদ মাধ্যম। দেশটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অসংখ্য লোক এদিন কুমসুসান প্যালেস অব দ্য সানে প্রতিষ্ঠাতা নেতা কিম ইল সাং এবং তার ছেলে কিম জং ইলের সংরক্ষণ করা মৃতদেহে শ্রদ্ধা জানান।

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিশু ও বেসামরিক নাগরিকরা দেশজুড়ে প্রয়াত নেতাদের স্মরণে নির্মিত ভাস্কর্যগুলোতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান; নাচের তালে তালে আর সাংস্কৃতিক আয়োজনে উদযাপন করেন প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনন্দ।

প্রসঙ্গত, একের পর এক পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর কারণে আন্তর্জাতিক বিশ্ব থেকে কার্যত নিঃসঙ্গ উত্তর কোরিয়া।