সুশিক্ষা

ফেনী ইউনিভার্সিটির শিক্ষার গুণগত মান জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের

ফেনী ইউনিভার্সিটির শিক্ষার গুণগত মান জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বলে মন্তব্য করেছেন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. সাইফুদ্দিন শাহ। উচ্চশিক্ষার গুণগত মানোন্নয়ন, প্রতিষ্ঠানের শিক্ষাগত ও প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা ও সূচক নির্ধারণে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
গত ২১ মে ইউনিভার্সিটির হলরুমে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের প্রথম কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি কথাগুলো বলেন। কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য সচিব ডা. এএসএম তবারক উল্লাহ চৌধুরী বায়োজিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজের মেম্বার আবদুর রইস কায়জার। তাদের পাশাপাশি ট্রেজারার ও শিক্ষাবিদ প্রফেসর তায়বুল হক
ও রেজিস্ট্রার এএসএম আবুল খায়ের বক্তব্য রাখেন।
দুই দিনব্যাপী এ কর্মশালার প্রথম দিনে পাঁচটি সেশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষক ও শিক্ষিকা অংশ নেন। এতে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর মোজাহের আলী চারটি সেশনে কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স ও সেলফ অ্যাসেসমেন্ট, টিচিং লার্নিং বেসিক, আউটকাম বেইজড টিচিং লার্নিং পদ্ধতিসহ কারিকুলাম কনসেপ্ট মডেল ও ডেভেলপমেন্ট স্ট্র্যাটেজি নিয়ে আলোচনা করেন। এর আগে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও ফেনী ইউনিভার্সিটির সিইসি বিভাগের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শামসুল আরেফিন প্রথম সেশনে শিক্ষকদের দায়িত্ব, কর্তব্য ও নৈতিক মূলনীতি নিয়ে আলোচনা করেন।
তারা বলেন, ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের মাধ্যমে বর্তমানে যুগোপযোগী উন্নত শিক্ষার ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে। ফেনী ইউনিভার্সিটি এ কর্মশালার মধ্য দিয়ে এক ধাপ এগিয়েছে। দেশের প্রথম সারির অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল নেই। তাই ফেনী ইউনিভার্সিটিতে এ কর্মশালা একটি মাইফলক।

শাহাদাত হোসেন তৌহিদ, ফেনী

সর্বশেষ..