ফেসবুকে সেলিব্রিটি হওয়ার কিছু উপায়

রাহাতুল ইসলাম: এখন সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। অনেক মানুষ দিনের বেশিরভাগ সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় থাকতে পছন্দ করেন। বর্তমানে সারা বিশ্বে অনেক মানুষই আছেন যাদের মানুষ চেনেন ফেসবুকের কারণে। ফেসবুক অ্যাকাউন্টের জন্য মানুষ আপনাকেও আলাদাভাবে চিনবেন। কিন্তু দেখা যায়, ভালো পোস্ট কিংবা ভালো ছবি আপলোড করলেও সবসময় চাহিদা অনুযায়ী সাড়া পাওয়া যায় না। এতে মন খারাপ হয়ে যায় অনেকের। অর্থাৎ ভালো পোস্ট করেও তেমন পরিচিতি পাচ্ছেন না সবার কাছে। হয়তো আপনার কিছু ভুলের জন্য এমনটি ঘটছে। সেই ভুলগুলো শুধরে নিলেই আপনি হতে পারেন বিখ্যাত ফেসবুকার। ধীরে ধীরে আপনিও হতে পারেন একজন ফেসবুক সেলিব্রিটি।

উৎসাহ পান এমন গ্রুপে যোগ দিন। মতামত বিনিময় করুন। পারলে কয়েকজন ফেসবুক সেলিব্রিটির সঙ্গে বন্ধুত্ব করুন

পোস্ট দেওয়ার সময়টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। ছুটির দিন রাতে বা ছুটির আগের দিন রাতে ফেসবুকের পোস্ট খুবই কার্যকরী

ফেসবুকে অনেক মানসম্মত গ্রুপ আছে। এসব গ্রুপের সক্রিয় সদস্য হয়ে যান, সবার সঙ্গে পরিচিত হন। সেখান থেকে বেছে পছন্দের মানুষদের অ্যাড করুন। দেখবেন ভারী হচ্ছে আপনার ফ্রেন্ড লিস্ট

অশ্লীল কিংবা ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানো পেজে লাইক দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। পোস্ট ও পেজের কনটেন্ট পাবলিক করে রাখুন

ফেসবুকের মাধ্যমে সামাজিক কর্তব্য পালন করুন। সেটা রক্তদান কিংবা দুস্থদের পাশে দাঁড়ানো হতে পারে, কিংবা অন্য সামাজিক কাজ হতে পারে

ফেসবুক ফ্রেন্ড সার্কেলে থাকা সবার জš§দিনের ‘রিমাইন্ডার’ দেয়। জš§দিনে বন্ধুদের ‘উইশ’ করতে ভুলবেন না

নিজের রসবোধকে কাজে লাগান। মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণের সবচেয়ে সহজ উপায় হলো রসবোধ। আপনি যে বিষয় নিয়ে উৎসাহী, সেই বিষয়ের একটি পেজ চালু করতে পারেন

নিয়মিত প্রোফাইল পিকচার পরিবর্তন করুন। যিনি ছবি তুলে দিচ্ছেন, তার নাম উল্লেখ করতে ভুলবেন না

গান, সিনেমা, বই এমন নানা জিনিসের রিভিউ দিন। তবে যে বিষয়ে আপনার জ্ঞান কম, সেটি নিয়ে লিখতে যাবেন না

বন্যা ও ভ‚মিকম্পের মতো আপৎকালীন বিষয়ে যত পারবেন খবর শেয়ার করুন। সাম্প্রতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে নিজের বক্তব্য দিন। তবে সেই ঘটনার বিশ্লেষণ যেন যুক্তিপূর্ণ হয়

গুরুত্ব বুঝে লাইক দিন। সবকিছুতে লাইক দিলে গুরুত্ব হারাবেন

নিতান্তই দরকার না হলে কিংবা পোস্টের সঙ্গে প্রাসঙ্গিক না হলে শুধু লাইকের লোভে কাউকে ট্যাগ করবেন না। এতে অনেকে বিরক্ত হন

যতটা পারবেন, নিজে থেকে বন্ধুত্বের অনুরোধ পাঠানো থেকে বিরত থাকুন। তাছাড়া কেউ বন্ধুত্বের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করলে তাকে উত্ত্যক্ত করবেন না।