বিশ্ব সংবাদ

বছরের শেষ প্রান্তিকে স্যামসাংয়ের মুনাফা কমেছে ২৯ শতাংশ

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ২০১৮ সালের শেষ প্রান্তিকে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৯ শতাংশ মুনাফা কমেছে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক প্রতিষ্ঠান স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের। স্মার্টফোন ও চিপের চাহিদা কমে যাওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা কমেছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। খবর: বিবিসি ও রয়টার্স।
চীনা অর্থনীতির ধীরগতির কারণে গত দুই বছরের মধ্যে এই প্রথম প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা কমেছে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্যযুদ্ধে জড়ানোর পর বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা ও শুল্ক আরোপের ফলে চীনে স্মার্টফোনের চিপের চাহিদা কমে যাওয়ায় স্যামসাং এ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।
বিশ্বের বৃহৎ সেমিকন্ডাক্টরস ও স্মার্টফোনের বাজারে মন্দা দেখা দেওয়ায় এরই মধ্যে বিনিয়োগকারীরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। অন্যদিকে চীনে আইফোনের চাহিদা কমে যাওয়ায় স্যামসাংয়ের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপল ইনকরপোরেশন চলতি সপ্তাহে তাদের প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাসের পরিমাণ কমিয়ে এনেছে।
গতকাল স্যামসাং তাদের চতুর্থ প্রান্তিকের সম্ভাব্য ফলাফল প্রকাশ করেছে। এ ফলাফলের তথ্য অনুযায়ী ২০১৮ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা ২৩ শতাংশ কমে গিয়ে ১০ দশমিক আট ট্রিলিয়ন ওন বা ৯ দশমিক সাত বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। এ প্রান্তিকে স্যামসাংয়ের আয় ১১ শতাংশ কমে ৫৯ ট্রিলিয়ন ওনে দাঁড়িয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির চূড়ান্ত ফলাফল চলতি মাসের শেষের দিকে প্রকাশ করা হবে।
গত বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক স্যামসাং ইলেকট্রনিকস রেকর্ড পরিমাণ মুনাফা ও নিট মুনাফা করেছিল। স্মার্টফোট বিক্রি কমলেও চিপ ব্যবসায় উন্নতির কারণে রেকর্ড মুনাফা অর্জন করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
তৃতীয় প্রান্তিকে স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের পরিচালন মুনাফা হয়েছে, ১৭ দশমিক ছয় ট্রিলিয়ন ওন বা ১৫ দশমিক চার বিলিয়ন ডলার। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় এটি ২১ শতাংশ বেশি। যেকোনো প্রান্তিকের তুলনায় এটিই এখন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির সবচেয়ে বেশি পরিচালন মুনাফা।
এইচআই ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড সিকিউরিটিজের সিনিয়র বিশ্লেষক সং মাইওং-সুপ বলেন, চীনে চাহিদা কমে যাওয়ায় ভবিষ্যতে স্যামসাংয়ের চিপ বিক্রি আরও কমে যাবে। একই সঙ্গে চীনের সমগ্র স্মার্টফোনের বাজার ক্রমেই নিম্নমুখী হবে। ফলে এর কারণে কেবল অ্যাপলই ক্ষতিগ্রস্ত হবে না, স্যামসাংও এ প্রভাবের মধ্যে পড়বে।
অন্যদিকে স্যামসাংয়ের বিশ্বব্যাপী স্মার্টফোনের যে বিশাল ব্যবসা রয়েছে, সেখানেও মুনাফা অর্জন বাধাগ্রস্ত হয়েছে। চতুর্থ প্রান্তিকে তাদের মুনাফা পাঁচ ভাগের এক ভাগ কমে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
অর্থলগ্নিকারী প্রতিষ্ঠান এইচডিসি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টের ফান্ড ম্যানেজার পাক সুং-হুন বলেন, চীনে আইফোনের বিক্রি এরই মধ্যেই কমে গেছে, স্যামসাংয়ের অবস্থাও একই রকম। ঠিক কতদিন চীনের মোবাইল বাজারে এ রকম দুর্বল চাহিদাপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করবে, সেটা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ।
চীনের স্মার্টফোনের বাজারে অ্যাপলের ৯ শতাংশ শেয়ারের বিপরীতে স্যামসাংয়ের ১ শতাংশেরও কম শেয়ার রয়েছে।

সর্বশেষ..