ফিচার

বাংলাদেশে প্রথম আন্তর্জাতিক রিবস অ্যান্ড স্টেক হাউজ

মার্কিন মুল্লুকের বিখ্যাত স্টেক অ্যান্ড রিবস শপ টনি রোমাস। রেস্টুরেন্টটির যাত্রা ১৯৭২ সালের ২০ জানুয়ারি। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের মিয়ামিতে এর পথচলা শুরু। মূলত ক্যাজুয়াল ডাইনিং রেস্টুরেন্ট হিসেবে জনপ্রিয় টনি রোমাস। এখানে সর্বোৎকৃষ্ট মানের বারবিকিউ রিবস, স্টেক ও সি-ফুড পরিবেশন করা হয়। টনি রোমাস ছয়টি মহাদেশে বিস্তৃত। বিশ্বের ১৫০টির বেশি আউটলেট সমাদৃত।

বাংলাদেশে টনি রোমাসের পথচলা শুরু ২০১৭ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর। এ রেস্টুরেন্টটিই দেশের প্রথম আন্তর্জাতিক রিবস অ্যান্ড স্টেক শপ। অল্প সময়ের মধ্যে এর খাবার সব শ্রেণির ভোক্তার মন জয় করে নিয়েছে। খাবারের মান নিয়ে কোনো আপস করে না রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ। তাই ভোক্তাদের মধ্যে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে টনি রোমাস।

টনি রোমাসে বিফ রিবস, ল্যাম্ব রিবস স্টেক পরিবেশন করা হয়। পাশাপাশি বার্গার, পাস্তা, চিকেন, স্যুপ, অ্যাপিটাইজার, স্পেশালিটি ড্রিংকস ও ডেসটিও পরিবেশন করা হয়। কাস্টমারদের শতভাগ হালাল ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবার অফার করা হয় এখানে। রেস্টুরেন্টটির মনোমুগ্ধকর ইন্টিরিয়র ডিজাইন যে কাউকে আকৃষ্ট করতে বাধ্য।

খাবারের পাশাপাশি তাদের আতিথেয়তা নজর কেড়েছে রাজধানীবাসীর। খাবার ও সেবা-দুই-ই উন্নত মানের। অল্প সময়ের মধ্যে তাই টনি রোমাস গ্রাহকের কাছে প্রিয় হয়ে উঠেছে

টনি রোমাসের অনন্য দিক হচ্ছে এখানকার স্টাফদের সেবা। খাবারের পাশাপাশি তাদের আতিথেয়তা নজর কেড়েছে রাজধানীবাসীর। খাবার ও সেবাÑদুই-ই উন্নত মানের। অল্প সময়ের মধ্যে তাই টনি রোমাস গ্রাহকের কাছে প্রিয় হয়ে উঠেছে। এ কারণে দুপুর থেকে রাতে এ রেস্টুরেন্টে ভিড় লেগে থাকে। এখানে মধ্যবয়স্ক থেকে শুরু করে সব বয়সের অতিথি আসেন।

টনি রোমাসে প্রবেশের পর সব গ্রাহকের মন ভালো হয়ে যায়। আপনিও ঘুরে আসুন, খেয়ে আসুন টনি রোমাসের খাবার। রেস্টুরেন্টটিতে গিয়ে মেন্যু দেখে অর্ডার দিন। নিশ্চিত থাকুন, কিছুক্ষণের মধ্যে আন্তর্জাতিক মানের স্বাদ নিতে পারবেন। এখানকার বিফ রিবস ও স্টেক অতুলনীয়।

 

সর্বশেষ..



/* ]]> */