বাণিজ্যযুদ্ধ সত্ত্বেও অক্টোবরে রফতানি বেড়েছে চীনের!

শেয়ার বিজ ডেস্ক: পূর্ণ বাণিজ্যযুদ্ধ শুরুর পরও রফতানির উচ্চ প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে চীনের। এক বছর আগের তুলনায় গত অক্টোবরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটির রফতানি বেড়েছে ১৬ শতাংশ। এর মাধ্যমে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি রফতানি হয়েছে চীনের। দেশটির সরকারিভাবে প্রকাশিত রিপোর্টে এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর: এএফপি, সিএনএন।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা পণ্যে শুল্কারোপ করার পর বিশ্বের শীর্ষ দুই অর্থনীতির মধ্যে সম্পর্ক বেশ খারাপ অবস্থায় পৌঁছেছে। এর মাধ্যমে মূলত দেশ দুটির মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে বাণিজ্যযুদ্ধ শুরু হয়েছে। দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা প্রশমনে আলোচনার জন্য চীনের শীর্ষ কয়েকজন কর্মকর্তা এখন ওয়াশিংটন সফরে রয়েছেন।
বাণিজ্যযুদ্ধের কারণে চীনের রফতানি বাণিজ্যে প্রভাব পড়তে পারে বলে বিশ্লেষকরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন শুরুতে। সম্প্রতি আগের মাসের তুলনায় চীনের রফতানি প্রবৃদ্ধি উচ্চ হতে পারে বলে জানানো হয়েছিল। তবে তাদের সে প্রত্যাশার তুলনায় আরও বেশি পণ্য রফতানি করেছে চীন।
এছাড়া অক্টোবরে চীনের রফতানি বাণিজ্য চিত্রবিশ্লেষকদের কাছে এক ধরনের অপ্রত্যাশিত হয়েই এসেছে। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ২০ হাজার কোটি ডলারের পণ্যে শুল্কারোপ এ মাস থেকেই পুরোপুরি কার্যকর হয়েছে। তবে অর্থনীতিবিদ ও চীন সরকার সম্প্রতি জানিয়েছেন, চলতি বছরের শেষ মাসে গিয়ে রফতানি প্রবৃদ্ধি আরও ধীর হতে পারে।
এর কারণ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের শুল্কারোপের ধারার প্রভাবের কথা বলেছেন তারা। গত ২৪ সেপ্টেম্বর ২০ হাজার কোটি ডলারের চীনা পণ্যে ১০ শতাংশ শুল্ক কার্যকর হয়েছে। তবে বছরের শেষ নাগাদ তা বৃদ্ধি পেয়ে ২৫ শতাংশে দাঁড়াবে। সেদিকে ইঙ্গিত করে এএনজেডের চীনা অর্থনীতিবিদ বেটি ওয়াং বলেছেন, অক্টোবরে চীনের রফতানি প্রবৃদ্ধি বিস্ময়করভাবে উচ্চ হলেও এটি সাময়িকভাবে হয়েছে বলেই মনে হচ্ছে। এটি দীর্ঘমেয়াদে হওয়া অসম্ভব বলেও মনে করেন তিনি।
বাণিজ্যযুদ্ধ শুরুর পর ডলারের বিপরীতে চীনের মুদ্রা ইউয়ানের মূল্যমানে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে পতন হয়েছে। এতে দেশটির অর্থনীতির চিত্র নিয়ে বিনিয়োগকারীরা আরও বেশি সতর্ক। এছাড়া বাণিজ্যযুদ্ধের কারণেও তারা উদ্বেগে রয়েছেন। অবশ্য দুর্বল মুদ্রার কারণে চীনা পণ্য প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর তুলনায় আরও বেশি প্রতিযোগিতামূলক হয়ে উঠেছে।
এছাড়া অক্টোবরে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) এবং জাপানের বাজারে শক্তিশালী অবস্থানের কারণেও অক্টোবরে রফতানিতে উচ্চ প্রবৃদ্ধি হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন। উদ্বেগ সত্ত্বেও বৈশ্বিক চাহিদার পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে অনেক বিশ্লেষকের ধারণা। এছাড়া চীনের বিশাল রফতানি শিল্পের ভালো সময় আরও কিছুদিন অব্যাহত থাকবে বলেও তারা ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন।