এসএমই

বিজনেস আইডিয়া: আগরবাতির ব্যবসা

 

নিজের পায়ে দাঁড়াতে হলে আপনাকে উদ্যোগী হতে হবে। আর উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য ঠিক করতে হবে কী দিয়ে শুরু করবেন। এজন্য দরকার অল্প পুঁজিতে শুরু করা যায় এমন ব্যবসা। এ ধরনের উদ্যোক্তার পাশে দাঁড়াতে শেয়ার বিজের সাপ্তাহিক আয়োজন

আগরবাতি জ্বালানোর পর তা পুড়ে সুগন্ধ ছড়ায়। বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব ও অনুষ্ঠানে আগরবাতি জ্বালানো হয়। মন্দির, মসজিদ, গির্জা প্রভৃতি উপাসনালয়ে, বাড়িতে মিলাদ বা পূজায় আগরবাতি ব্যবহার করা হয়। এছাড়া সুগন্ধি হিসেবে অনেকে প্রতিদিন ঘরে কিংবা দোকানেও আগরবাতি ব্যবহার করেন। আগরবাতি তৈরি ও বিক্রির ব্যবসা বেশ সহজ। অল্প বিনিয়োগ ও পরিশ্রমে এ ব্যবসা করা যায়। ক্ষুদ্র ব্যবসা হিসেবে আগরবাতি তৈরি করে আয় করা সম্ভব। যে কোনো ব্যক্তি নিজের কর্মসংস্থানের জন্য আগরবাতি তৈরির ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

 

সুবিধা

ছোট থেকে বড় আকারে এ ব্যবসা করার সুযোগ আছে

এ ধরনের প্রকল্পে সরকারি-বেসরকারি ও উন্নয়ন সংস্থা থেকে সহজে ঋণ সহযোগিতা পাওয়া যায়

পুঁজি কম লাগে

এ ব্যবসায় লাভ বেশি

পারিবারিক কাজের ফাঁকে ফাঁকে ঘরে বসে ব্যবসাটি চালানো যায়

দামি মেশিন ও যন্ত্রপাতির প্রয়োজন পড়ে না

 

সাবধানতা

গুণগত মান ও প্যাকেটের ডিজাইন আকর্ষণীয় হতে হবে

উৎপাদন খরচ অনুযায়ী দাম ধরতে হয়। ফলে লাভ কম-বেশি হতে পারে

ভালোভাবে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে

 

স্থায়ী উপকরণ

গামলা, বাটি, ডালা, চুলা, পিঁড়ি, দাঁড়িপাল্লা, চালনি ও প্যাকেট প্রভৃতি।

কাঁচামাল

রঙ, কাঠের গুঁড়ো বা ভুসি, কয়লার গুঁড়ো, বিজলা গাছের ছাল, ডিপিই তেল, তরল সেন্ট, বাঁশের কাঠি প্রভৃতি।

বাজার সম্ভাবনা

আগরবাতির চাহিদা প্রায় সারা বছরই থাকে। পাইকারি হিসেবে অথবা খোলাবাজারে কিংবা হাটে খুচরাভাবে ক্রেতার কাছে আগরবাতি বিক্রি করা যায়। এছাড়া সবচেয়ে বেশি বিক্রি করা যায় মাজারের কাছে।

পুঁজি

পাঁচ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা নিয়ে শুরু করতে পারেন।

আয় ও লাভের হিসাব

আগরবাতি প্যাকেট করে বিক্রির জন্য হাট-বাজার, মেলা ও বিভিন্ন দোকানে নিয়ে যেতে হবে। এক ডজন আগরবাতি দিয়ে একটা প্যাকেটে ৬০০টি আগরবাতি দিয়ে ৫০টি প্যাকেট করা যাবে। পাইকারি ও খুচরা দুই ধরনের দাম ঠিক করতে হবে। বর্তমান বাজারে এক ডজন আগরবাতির দাম ১০ টাকা থেকে শুরু। মান অনুযায়ী কম-বেশি হতে পারে। মোট খরচ বাদ দিয়ে ভালো মুনাফা করা সম্ভব।

 

প্রশিক্ষণ

সরকারি ও বেসরকারি অনেক প্রতিষ্ঠান আগরবাতি তৈরির প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। এছাড়া অভিজ্ঞ কারও কাছ থেকে আগরবাতি তৈরি এবং এ ব্যবসার বিস্তারিত জেনে নিলে সুবিধা হবে।

 

শিপন আহমেদ

সর্বশেষ..