এসএমই

বিজনেস আইডিয়া: মুরগি পালন

নিজের পায়ে দাঁড়াতে হলে আপনাকে উদ্যোগী হতে হবে। আর উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য ঠিক করতে হবে, কী দিয়ে শুরু করবেন। এজন্য দরকার অল্প পুঁজিতে শুরু করা যায় এমন ব্যবসা। এ ধরনের উদ্যোক্তার পাশে দাঁড়াতে শেয়ার বিজের সাপ্তাহিক আয়োজন

মুরগির ডিম, মাংস শুধু সুস্বাদুই নয়, আমিষ-সমৃদ্ধ খাদ্যও। মুরগি পালন করে পরিবারের খাদ্য চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বাড়তি আয়ও করা যায়। শহর বা গ্রামে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে মুরগির খামার গড়ে তোলা যায়। এটি সহজ ও লাভজনক ব্যবসা। অল্প সময়ের মধ্যে ভালো আয় করা সম্ভব। বাড়ির গৃহিণীরা সহজে মুরগির খামার পরিচালনা করতে পারেন। দেশি, লেয়ার ও ব্রয়লার মুরগি পালন করে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেন।

দেশি
দেশি মুরগি গ্রাম-গঞ্জের বাড়ির আঙিনা, রাস্তাঘাট, মাঠ ও ক্ষেত-খামারে অবাধে ঘুরে বেড়ায়। ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা খাবার কুড়িয়ে খায়। এরা মুক্ত আলো-বাতাস, বিশেষ করে সূর্যকিরণে বেড়ে ওঠেÑযা তাদের শরীরে ভিটামিন ‘ডি’ তৈরিতে
সাহায্য করে। এদের পরিচর্যার জন্য সময় কিংবা লোকজনের তেমন দরকার পড়ে না।

লেয়ার
লেয়ার মুরগি হলো ডিম উৎপাদনের জন্য বিশেষ ধরনের মুরগি, যা একদিন বয়স থেকে পালন করা হয়। ১৮ থেকে ১৯ সপ্তাহ বয়সে ডিম দিতে শুরু করে। এর উৎপাদনকাল ৭২ থেকে ৭৮ সপ্তাহ বয়স পর্যন্ত স্থায়ী হয়।

ব্রয়লার
মাংস উৎপাদনের জন্য বিশেষ এক ধরনের মুরগি এই ব্রয়লার। ৩০ থেকে ৩৫ দিনে দেড় থেকে দুই কেজি পর্যন্ত হয়। এর মাংস খুব নরম ও সুস্বাদু।

খাদ্য
ব্রয়লার ও লেয়ার মুরগির খাবার: গম কিংবা ভুট্টা ভাঙা, চালের কুঁড়া, তিলের খৈল, সয়াবিন মিল, প্রোটিন কনসেনট্রেট, শুঁটকি মাছের গুঁড়ো, ঝিনুক ভাঙা, লবণ, ভিটামিন ও খনিজ মিশ্রণ, ফিশমিল, ডিএল মিথিউনি প্রভৃতি।
দেশি মুরগির খাবার: ভাত, গম, ধান, পোকামাকড়, শাকসবজির ফেলে দেওয়া অংশ, ঘাস, লতাপাতা প্রভৃতি। এদের খাবারের জন্য তেমন কোনো খরচ করতে হয় না।

ব্রয়লার ও লেয়ারের বাসস্থান
প্রতিকূল আবহাওয়া, বন্যপ্রাণী ও দুষ্কৃতকারী হতে রক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে

অনুকূল, আরামদায়ক ও পরিচ্ছন্ন পরিবেশে রাখতে হবে

বাসস্থানটি খোলামেলা থাকতে হবে

আলো ও বাতাস চলাচলের সুযোগ থাকতে হবে

সহজে ঘরের গ্যাস বের করে দেওয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে

বন্যার পানি ওঠে না এমন উঁচু ভূমি নির্বাচন করতে হবে

জনবসতি, হাট-বাজার ও কল-কারখানা থেকে দূরে থাকতে হবে বাসস্থানটি

ভালো যোগাযোগ ও বিদ্যুৎ সংযোগ ব্যবস্থা থাকতে হবে

নিকটতম স্থানে বাজারজাতকরণের সুবিধা থাকা উচিত

দুর্গন্ধমুক্ত রাখতে হবে

আর্দ্রতা ও তাপ নিয়ন্ত্রণের সুবিধা থাকতে হবে

লেয়ার ও ব্রয়লার মুরগি নির্বাচন
লেয়ার: গুণগত মানে সেরা লেয়ারের বাচ্চা সংগ্রহ করতে হবে।
ব্রয়লার: গুণগত মানে সেরা ব্রয়লারের বাচ্চা ও তাড়াতাড়ি বাড়েÑএমন মুরগির জাত নির্বাচন করতে হবে।

চিকিৎসা
লেয়ার মুরগি মারেক্স, রানিক্ষেত, গামবোরো, ব্রঙ্কাইটিস, বসন্ত, সালমোনেলা, করাইজায় আক্রান্ত হতে পারে। ব্রয়লার মুরগির মারেক্স, রানিক্ষেত, গামবোরো প্রভৃতি হয়ে থাকে। এসব রোগ প্রতিরোধের জন্য নিয়মিত টিকা দিতে হবে। রোগাক্রান্ত মুরগিকে সঠিক চিকিৎসা করাতে হবে।

মুরগি পালনের সুবিধা

মুরগির ডিম ও মাংস পরিবারের পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে

অল্প টাকা বিনিয়োগে অধিক আয় করা যায়

মুরগির বিষ্ঠা জৈবসারের একটি ভালো উৎস

পরিবারের সবাই মিলে মুরগি পালন করা যায়

বাজার সম্ভাবনা
স্থানীয় বাজার ছাড়া হাট-বাজারে মুরগি বিক্রি করা যায়। মুরগির ডিম প্রতিবেশী, স্থানীয় দোকান, বাজারে পাইকারি কিংবা খুচরা বিক্রি করা যায়। এছাড়া হোটেল ও রেস্টুরেন্টে ডিম ও মাংস বিক্রি করা যায়। এর চাহিদা সব সময় থাকে।

পুঁজি
এক থেকে দুই লাখ টাকা দিয়ে শুরু করতে পারেন। তবে ফার্মের আকার অনুযায়ী টাকার পরিমাণ কম-বেশি হতে পারে।

শিপন আহমেদ

সর্বশেষ..