বিজনেস আইডিয়া: সুগন্ধি ব্যবসা

নিজের পায়ে দাঁড়াতে হলে আপনাকে উদ্যোগী হতে হবে। আর উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য ঠিক করতে হবে কী দিয়ে শুরু করবেন। এজন্য দরকার অল্প পুঁজিতে শুরু করা যায় এমন ব্যবসা। এ ধরনের উদ্যোক্তার পাশে দাঁড়াতে শেয়ার বিজের সাপ্তাহিক আয়োজন

সুগন্ধি ব্যবসা

সুগন্ধি আভিজাত্যের প্রতীক। সুন্দর পোশাকের সঙ্গে সুগন্ধি ছাড়া কী চলে? ভিড়ের মধ্যে নিজেকে আলাদা করে চেনাতে সৌরভময় উপস্থিতিই যথেষ্ট। আর বিশেষ উপলক্ষ হলে তো কথাই নেই। বিভিন্ন উৎসবের সাজ পরিপূর্ণ করতে সুগন্ধি ব্যবহার করে থাকি আমরা। তাই বিভিন্ন উৎসব-পার্বণ এলে সুগন্ধির ব্যবহার বেড়ে যায়। এছাড়া প্রতিদিন অফিস কিংবা অনুষ্ঠানেও সুগন্ধি অপরিহার্য। এ ব্যবসা করতে পুঁজি তুলনামূলক কম লাগে। তাই আপনিও শুরু করতে পারেন সুগন্ধি ব্যবসা।

সুবিধা

তুলনামূলক কম পুঁজি লাগে

সহজেই কাঁচামাল পাওয়া যায়

জায়গা কম লাগে

বাজার সম্ভাবনা

ছোট বড় সবার কাছে বিভিন্ন ধরনের সুগন্ধি প্রিয়। আমাদের দেশে সুগন্ধির ভালো বাজার রয়েছে। এর চাহিদা সব সময় থাকে। বিশেষ করে কসমেটিকস, জেনারেল স্টোর, সুপারসপ, বাজার, শপিংমলে বিক্রি করা যায়। এছাড়া দেশের পাশাপাশি বিদেশের বাজার ধরার জন্য চেষ্টা করতে পারেন।

বিভিন্ন ধরণের সুগন্ধি

উৎস ভেদে কয়েক প্রকার সুগন্ধি রয়েছে। ফ্লোরাল, স্পাইসি, অ্যালকোহলিক প্রভৃতি। ফুল থেকে যে সুগন্ধি তৈরি হয় সেগুলো ফ্লোরাল গ্রুপের অন্তর্ভুক্ত। স্পাইসি সুগন্ধি লবঙ্গ, দারুচিনি, তেজপাতা, গোলমরিচ, এলাচি প্রভৃতি  থেকে তৈরি হয়। অ্যালকোহলিক জাতীয় সুগন্ধিতে মূলত বিশ্বের নামকরা অ্যালকোহল ব্যবহƒত হয়। এছাড়া চন্দন কাঠ, কস্তুরী, জাফরান, আগর, ভ্যানিলা থেকে নানা ধরনের সুগন্ধি তৈরি করা হয়।

প্রচার

প্রচারেই প্রসার। প্রচারের কোনো বিকল্প নেই। বিশেষ করে সংবাদপত্র, রেডিও, টেলিভিশনসহ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে সুগন্ধি প্রচারের কাজ করতে পারেন। এছাড়া সুগন্ধির স্যাম্পল বিভিন্ন দোকানে দিতে পারেন। পরে চাহিদা অনুযায়ী অর্ডার নিয়ে বিপণনকেন্দ্রগুলোয় সরবরাহ করতে পারেন।

পুঁজি

৪০ থেকে ৬০ হাজার টাকার মূলধন নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

লাভ

মান অনুযায়ী প্রতি বোতল সুগন্ধি ১০০ থেকে ৫০০ টাকায় বিক্রি করতে পারবেন। নাম ও আকর্ষণীয় প্যাকেটে মানসম্পন্ন সুগন্ধি তৈরি করতে হবে। এর ঘ্রাণ যেন ভালো হয়, সেদিকে লক্ষ রাখুন। কারণ এর ওপরই নির্ভর করবে আপনার ব্যবসা। তাই গুণগত মান বজায় রাখার চেষ্টা করুন। বাজার ধরতে পারলে মূলধন নিয়ে ভাবতে হবে না। এছাড়া দোকান মালিকদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে হবে।

প্রশিক্ষণ

সুগন্ধি ব্যবসা শুরুর জন্য অবশ্যই প্রশিক্ষণ নিতে হবে। কারণ একেক ধরনের সুগন্ধি তৈরির প্রক্রিয়া একেক রকম। তাই অভিজ্ঞ কারও কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে শুরু করতে পারেন।

 

শিপন আহমেদ