স্পোর্টস

বিপিএল বয়কটের হুমকি রংপুরের

ক্রীড়া প্রতিবেদক: বেশ ঘটা করেই কয়েক দিন আগে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নতুন মৌসুমের জন্য চুক্তি করেছিল রংপুর রাইডার্স। কিন্তু গত পরশু বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সংবাদ সম্মেলনে জানিয়ে দেয় উত্তরবঙ্গের দলটির সঙ্গে সাকিবের চুক্তি বৈধ নয়। কেননা, গত বছরই সব ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে তাদের চুক্তি শেষ হয়েছে। তাই নতুন করে এবার আগামী চার মৌসুমের জন্য আগ্রহী ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে চুক্তি হবে। এরপরই প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে খেলোয়াড়দের টানার সুযোগ থাকবে। মূলত এরপরই রংপুর রাইডার্স ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। শুধু তাই বিপিএল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা এবারের আসর বয়কটেরও হুমকি দিয়েছে।
বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল নির্দিষ্ট একটি দলকে সুবিধা দিতেই যখন যা করা প্রয়োজন, তা-ই করে আসছে। এবারও সে পথেই হাঁটছে সংস্থাটি। এ অভিযোগ করছে রংপুর রাইডার্স।
গত পরশু বোর্ড সভা শেষে বিসিবি পরিচালক মাহবুব আনাম জানান, ‘রংপুরের সঙ্গে সাকিবের চুক্তির কোনো ভিত্তি নেই। এ চুক্তি আমাদের কাছে বৈধতা পাচ্ছে না। বিসিবির সঙ্গে এখন পর্যন্ত কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজির চুক্তি হয়নি। তারা (রংপুর রাইডার্স) যা করেছে, তার সঙ্গে বোর্ড বা বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের কোনো সম্পর্ক নেই। এ নিয়ে আমাদের আলোচনা করারও দরকার নেই। নিয়মের বাইরে আপনি যা কিছুই করুন না কেন, সেটি গ্রহণযোগ্যতা পাবে না।’
সাকিব-রংপুরের মধ্যে চুক্তি নিয়ে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল যে যুক্তি দিয়েছে, তা মানতে নারাজ উত্তরবঙ্গের দলটি। তাদের দাবি, বিসিবি তাদের মৌখিক ও লিখিতভাবে আগেই জানিয়েছে, টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি নিতে। শুধু রংপুর নয়, এমন দাবি করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস, খুলনা টাইটানস ও রাজশাহী কিংসও। গত ১১ মে বিসিবির অফিসিয়াল প্যাডে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের স্বাক্ষরসহ একটি চিঠি দেওয়া হয় ফ্র্যাঞ্চাইজিদের। তাতে স্পষ্ট করে বলা হয়, আগামী আসরের প্রস্তুতি নিতে এবং যদি কোনো বকেয়া থাকে, তবে তা পরিশোধ করতে।
বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের নতুন সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রংপুর রাইডার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইশতিয়াক সাদেক, ‘প্রতি বছর কোনো না কোনো নতুন নিয়ম নিয়ে আসে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। প্রথম বছর আমরা যখন এলাম, তখন আনলিমিটেড বিদেশি খেলোয়াড়। এ প্লাস কিংবা আইকন যে কোনো টপ খেলোয়াড়কে বেছে নেওয়ার সুযোগ ছিল। পরের বছর দেশি-বিদেশি মিলিয়ে চার রিটেইন। চার বিদেশির বেশি খেলানো যাবে না। এবার বলছে, কোনো রিটেইন নেই, সব নতুন করে। আমার প্রশ্ন: যদি সব শুরু থেকেই শুরু করতে হয়, তাহলে ওরকম চিঠি পাঠানোর দরকার কি ছিল? আর এত লম্বা প্রসেস কেন হুটহাট করা হচ্ছে? বিশ্বের অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ একটি নির্দিষ্ট পরিকল্পনা ও নির্দিষ্ট নিয়মে চলে। এখানে বিশেষ একটি দলের জন্য গত তিন বছরে তিনবার নতুন নতুন নিয়ম করা হয়েছে।’
শুধু সাকিব নন, এবারের বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগেই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ছেড়ে খুলনা টাইটানসে নাম লিখিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। এদিকে চিটাগং ভাইকিংস ছেড়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসে নিজের ঠিকানা গেড়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। এছাড়া ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো বেশ কয়েকজন বিদেশি ক্রিকেটারের সঙ্গেও আনুষ্ঠানিক চুক্তি করেছিল। কিন্তু গত পরশু বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সংবাদ সম্মেলনের পরই সব বাতিল হয়েছে। যে কারণে বিশেষ করে রংপুর রাইডার্স সংস্থাটির প্রতি ক্ষুব্ধ।
গত কয়েক বছর ৬ কিংবা ৭ দল নিয়ে হয়েছিল বিপিএল। কিন্তু এ টুর্নামেন্টের সপ্তম সংস্করণ হবে ৮ দল নিয়ে। আগামী ৬ ডিসেম্বর শুরু হবে জমজমাট এ টুর্নামেন্টে ব্যাট-বলের লড়াই। কিন্তু তার আগেই নতুন সংস্করণের বিপিএল পড়েছে সমালোচনার মুখে।

 

সর্বশেষ..



/* ]]> */