স্পোর্টস

‘বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশের’

ক্রীড়া ডেস্ক: মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে গত চার বছর ওয়ানডে দুর্দান্ত খেলে আসছে বাংলাদেশ। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখলে এবারের বিশ্বকাপে টাইগাররা জায়গা করে নেবে সেমিফাইনালে। সে আশাই করছেন অনেকে। তবে সাকিব আল হাসানের মনে হয়েছে, বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশের। এর আগে অবশ্য অধিনায়ক মাশরাফিও দিয়েছেন এমন আভাস।
ভারতীয় সংবাদ সংস্থা আইএএনএসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সাকিব বলেছেন, ধারাবাহিক পারফরম্যান্স বাংলাদেশকে বিশ্বকাপের নকআউটে কিংবা আরেক ধাপ এগিয়ে নিতে পারে, ‘প্রকৃতই এবার আমাদের টুর্নামেন্ট জয়ের সুযোগ আছে বলে মনে করি। তবে অবশ্যই আমাদের ধারাবাহিক পারফর্ম করতে হবে। তা করতে পারলে নকআউট পর্বে উঠতে পারব এবং সেখান থেকে এগিয়ে যাওয়া যাবে। এবার আমরা ভালো করব সে ব্যাপারে আমি আত্মবিশ্বাসী।’
বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্ন পূরণে সামনে অনেক বাধা। এটা দূর করতে দল হয়ে খেলতে হবে বলে মনে করেন সাকিব, ‘বাংলাদেশ শিরোপা জিতবে অবশ্যই সে আশা করি। তবে এ জন্য একসঙ্গে অনেক কিছু কাজ করতে হবে। আইপিএলে আমি বেশি খেলিনি, বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে মনোযোগ দিয়েছি। অনুশীলনে নিজের পুরোটাই নিংড়ে দিয়েছি।’
ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‌্যাঙ্কিংয়ে কিছুদিন আগেই শীর্ষস্থানে ফিরেছেন সাকিব। বিশ্বকাপের আগে হারানো গৌরব ফিরে পাওয়ায় আরও বেশি ফুরফুরে এ তারকা। বাংলাদেশকে প্রথমবার বিশ্বকাপ এনে দিতে এ বাঁহাতি চেষ্টা করবেন সর্বোচ্চ, ‘আমাদের অভিজ্ঞতা আছে। দলে কয়েকজন খেলোয়াড় আছে যারা তিন-চারটি বিশ্বকাপে খেলেছে। এটা ভালো ব্যাপার কারণ কি করা উচিত তা বুঝতে পারব। আমি আত্মবিশ্বাসী। নিজেদের দিনে যে কোনো দল যে কাউকে হারাতে পারে।’
অনেকেই এবারের বিশ্বকাপের ফেবারিট বলছেন ইংল্যান্ড ও ভারতকে। তবে ‘ফেবারিট’ তকমা তাদের বিশ্বকাপ জেতাতে পারবে না বলে মনে করেন সাকিব, ‘ইংল্যান্ড ও ভারত অবশ্যই ফেবারিট। তবে এ তকমা তাদের শিরোপা জেতাতে পারবে না। বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্ট জিততে আপনাকে কঠোর হয়ে খেলতে হবে। অস্ট্রেলিয়া এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজও ঠিক সময়মতো ভালো করছে। সত্যি বলতে, প্রতিটি দলই লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত। নির্দিষ্ট দিনে কে ভালো করবে তার ওপর সব নির্ভর করছে।’
আর চার দিন পরই ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে দ্বাদশ বিশ্বকাপের। এ লড়াইয়ে বাংলাদেশের পথচলা শুরু হবে আগামী ২ জুন। প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। যে ম্যাচে জয় চাই টিম টাইগার্স। তার আগে আগামীকাল পাকিস্তান ও ২৮ মে ভারতের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামবে মাশরাফির বাংলাদেশ।
৩০ মে ইংল্যান্ডে শুরু হবে বিশ্বকাপ। ২ জুন ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে বাংলাদেশ।

 

সর্বশেষ..