হোম আন্তর্জাতিক বেড়েছে অপরিশোধিত চিনির দাম : মিশ্র প্রবণতায় কফি ও কোকো

বেড়েছে অপরিশোধিত চিনির দাম : মিশ্র প্রবণতায় কফি ও কোকো


Warning: date() expects parameter 2 to be long, string given in /home/sharebiz/public_html/wp-content/themes/Newsmag/includes/wp_booster/td_module_single_base.php on line 290

শেয়ার বিজ ডেস্ক: হারিকেন ইরমার প্রভাবে অন্যতম প্রধান চিনি উৎপাদনকারী দেশ কিউবায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এতে প্রভাব পড়েছে আন্তর্জাতিক বাজারে। সোমবার ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা গেছে অপরিশোধিত চিনির দামে। এদিকে শীর্ষ উৎপাদনকারী দেশে ব্রাজিলে শুষ্ক আবহাওয়া অব্যাহত থাকায় এদিন অ্যারাবিকা কফির দামও বেড়েছে। খবর বিজনেস রেকর্ডার।

অক্টোবরে সরবরাহ চুক্তিতে লন্ডনের ইন্টারকন্টিনেন্টাল এক্সচেঞ্জে (আইসিই) সোমবার দিন শেষে প্রতি পাউন্ড অপরিশোধিত চিনির দাম ১৪ ডলার ২৯ সেন্টে স্থির হয়। আগের দিনের তুলনায় এটি দশমিক ২০ সেন্ট বা এক দশমিক চার শতাংশ বেশি।

অপরিশোধিত চিনির পাশাপাশি লন্ডনে পরিশোধিত চিনির দামও বেড়েছে। ডিসেম্বরে সরবরাহের চুক্তিতে বৃহস্পতিবার প্রতি টন সাদা চিনি বিক্রি হয়েছে ৩৭৮ ডলার ৩০ সেন্টে। আগের দিনের তুলনায় এটি দুই ডলার ৬০ সেন্ট বা দশমিক সাত শতাংশ বেশি। ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে হারিকেন ইরমার কারণে শস্যের সম্ভাব্য ক্ষতির উদ্বেগেই মূলত বাজার ঊর্ধ্বমুখী ধারায় রয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বাজার বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান সোসাইটি জেনারেলের পরিচালনক মাইকেল ম্যাকডোগাল জানান, ইরমার আঘাতে শস্যের সম্ভাব্য ক্ষতির প্রভাব দেখা গেছে বাজারে। তবে এটি স্থায়ী হবে না বলে মনে করছেন তিনি। ব্যবসায়ীরা ২০১৭-১৮ মৌসুমে ভারতের উৎপাদন ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনাকে বিকল্প হিসেবে তুলে ধরেন ম্যাকডোগাল।

এদিকে দাম বেড়েছে অ্যারাবিকা কফির। তবে কিছুটা দাম কমেছে রোবাস্তা কফির। সোমবার পাউন্ডে এক ডলার ২০ সেন্ট বা দশমিক ৯২ শতাংশ দাম বেড়েছে অ্যারাবিকা কফির। এদিন ডিসেম্বরে সরবরাহের চুক্তিতে প্রতি পাউন্ড কফি বিক্রি হয়েছে এক দশমিক ৩১৮৫ ডলারে। অন্যদিকে টনে ৯ ডলার দাম কমেছে রোবাস্তার। নভেম্বরে সরবরাহ চুক্তিতে দশমিক পাঁচ শতাংশ দাম কমে প্রতি টন রোবাস্তা কফি বিক্রি হয়েছে এক হাজার ৯৫১ ডলারে।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, বৃহৎ উৎপাদনকারী দেশ ব্রাজিলে টানা শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে উৎপাদনে নেতিবাচক প্রভাব পড়বেÑএমন আশঙ্কায় দাম বেড়েছে অ্যারাবিকা কফির।

মিশ্র প্রবণতা দেখা গেছে চকোলেট তৈরির কাঁচামাল কোকোর বাজারেও। লন্ডনের বাজারে সোমবার দাম কমেছে পণ্যটির। লন্ডনে পণ্যটির দাম কমেছে টনে এক পাউন্ড। ভবিষ্যৎ সরবরাহ চুক্তিতে দশমিক শূন্য সাত শতাংশ কমে প্রতি টন কোকো বিক্রি হয়েছে এক হাজার ৪৭৬ পাউন্ডে। তবে নিউইয়র্কে টনে এক ডলার দাম বেড়েছে পণ্যটির।