ব্যাননের মাথা খারাপ হয়ে গেছে: ট্রাম্প

শেয়ার বিজ ডেস্ক : হোয়াইট হাউসের সাবেক উপদেষ্টা স্টিভ ব্যাননকে দায়িত্ব থেকে অপসারণের পর তার মাথা খারাপ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার (৩ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন। একটি বইয়ে উল্লেখ করা হয়,  স্টিভ ব্যানন রাশিয়ানদের সঙ্গে ট্রাম্পের ছেলের বৈঠককে ষড়যন্ত্রমূলক উল্লেখ করেছেন। এরপরই ট্রাম্প এই মন্তব্য করলেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের আইনজীবী ব্যাননকে এসব কর্মকাণ্ড থেকে বিরত ও বন্ধ করার জন্য একটি চিঠি দিয়েছেন।

ট্রাম্প বলেন, আমার সঙ্গে বা আমার প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনে স্টিভ ব্যাননের কোনো সম্পর্ক নেই। যখন তাকে ছাঁটাই করা হয়েছিল তিনি শুধু দায়িত্ব হারাননি, তার মাথাও খারাপ হয়ে গেছে।

ট্রাম্প আরও বলেন, ১৭ জন প্রার্থীকে পরাজিত করার পর যখন আমি মনোনয়ন পাই, তখন স্টিভ আমার টিমের একজন কর্মী হিসেবে যোগ দেন। এই টিমকে রিপাবলিকান পার্টির ইতিহাসের অন্যতম সেরা বলে মনে করা হয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, এখন স্টিভ একা হয়ে গেছেন। তিনি বুঝতে পারছেন, আমি জয় যেমন সহজে পেয়েছি বাস্তবে তা এত সহজ নয়। আমাদের ঐতিহাসিক জয়ে স্টিভের ভূমিকা খুব সামান্যই ছিল। যে জয় আমাদের উপহার দিয়েছেন দেশের ভুলে যাওয়া নারী ও পুরুষরা।

ট্রাম্পের আইনজীবী জানান, স্টিভ ব্যানন তার চাকরির চুক্তি ভঙ্গ করেছেন মাইকেল উলফ’র বই এবং ট্রাম্প ও তার পরিবার নিয়ে কথা বলে। এছাড়া তিনি রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্যও প্রকাশ করেছেন।

স্টিভ ব্যানন ছিলেন ট্রাম্পের প্রধান কৌশলবিদ। মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিতর্কিত আমেরিকা ফার্স্ট নীতির অন্যতম কারিগর মনে করা হয় তাকে। আগস্টে তাকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

অপসারিত হওয়ার পর ব্যানন পুনরায় ডানপন্থী ব্রেইটবার্ট নিউজ-এর দায়িত্বে ফিরে যান। ওই সময় তিনি জানান,  ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নয়, তার পক্ষেই লড়াই করবেন।

উগ্র রক্ষণশীল রাজনৈতিক সংবাদমাধ্যম ব্রেইটবার্ট নিউজ নেটওয়ার্কের এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান-এর আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব ছেড়ে ট্রাম্প প্রশাসনের মুখ্য কৌশল প্রণেতা হয়েছিলেন স্টিভ ব্যানন। বিবিসি