বিশ্ব সংবাদ

ভেনেজুয়েলার চার কোম্পানি ও ৯ জাহাজের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ভেনেজুয়েলার তেল পরিবহনে নিয়োজিত চারটি কোম্পানি ও ৯টি জাহাজকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা কোম্পানি ও জাহাজগুলোর কয়েকটি কিউবায় তেল সরবরাহ করত বলে গত শুক্রবার জানিয়েছে মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট। খবর: রয়টার্স।
মার্কিন ট্রেজারি বিভাগের কালো তালিকায় পড়া কোম্পানিগুলো হলোÑলাইবেরিয়ার জেনিফার নেভিগেশন, লিমা শিপিং কর্পস ও লার্জ রেঞ্জ এবং ইতালির পিবি ট্যাংকারস এসপিএ। নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়া জাহাজগুলোর তিনটি লাইবেরিয়ার ও ছয়টি ইতালির। এ কোম্পানিগুলোর মাধ্যমে ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর পক্ষে এখনও তেল রফতানি করা হয় বলে ট্রেজারি বিভাগ অভিযোগ করে।
মার্কিন ট্রেজারি সেক্রেটারি স্টিভেন মুচিন বলেন, ভেনেজুয়েলার তেলসম্পদের মালিক দেশটির জনগণ। এ সম্পদ নিকোলাস মাদুরো সরকারকে টিকিয়ে রাখার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না। তাই মাদুরো সরকারের হয়ে ভেনেজুয়েলা থেকে কিউবায় তেল সরবরাহকারী অন্য কোম্পাগুলোকেও লক্ষ্যবস্তু করা হবে।
ট্রেজারি বিভাগের নিষেধাজ্ঞায় পড়া কোম্পানিগুলো মার্কিন কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করতে পারবে না এবং যুক্তরাষ্ট্রে তাদের সব অর্থনৈতিক কার্যক্রমও নিষিদ্ধ থাকবে। গত সপ্তাহেও যুক্তরাষ্ট্র ভেনেজুয়েলার রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ৩৪টি জাহাজের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।
ভেনেজুয়েলায় পছন্দের সরকার বসাতে দেশটির ওপর আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে নানা বিধিনিষেধ আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। রাজধানী কারাকাসে চলছে সরকারপন্থি ও সরকারবিরোধীদের মুখোমুখি বিক্ষোভ। প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন দেশটির স্বঘোষিত অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট জুয়ান গুয়াইদো। মার্কিন অবরোধের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করছে ভেনেজুয়েলা। দেশটিতে খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে আকাশ ছুঁয়েছে। এদিকে দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে বিদ্যুৎবিভ্রাট দেখা দিয়েছে।
রাজধানী কারাকাসে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। হঠাৎ করেই কর্মব্যস্ত শহরে নেমে আসে অন্ধকার। তারপর অন্যান্য স্থানেও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। বিদ্যুৎবিভ্রাটের কারণে কারাকাসের প্রধান বিমানবন্দর অভিমুখী ফ্লাইটগুলোর দিক পরিবর্তন করা হয়েছে।

সর্বশেষ..