প্রথম পাতা

ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগে ১১ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভ্যাট চালান ছাড়া পণ্য পরিবহন করায় ইউএস-বাংলার প্রতিষ্ঠান ইউএসবি এক্সপ্রেস কুরিয়ার ও পাঁচটি ওষুধ কোম্পানিসহ ১১ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে ঢাকা পশ্চিম কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে প্রাপ্য ভ্যাটও আদায় করা হয়। ভ্যাট পশ্চিম কমিশনারেটের কমিশনার ড. মইনুল খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
জানা যায়, অনিয়মের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানগুলোকে পাঁচ হাজার থেকে সাড়ে চার লাখ টাকার অর্থদণ্ড আরোপ করা হয়েছে। মোট জরিমানার পরিমাণ পাঁচ লাখ ৯ হাজার টাকা। এ জরিমানা পরিহার করা ভ্যাটের অতিরিক্ত হিসেবে গণ্য হবে।
প্রতিষ্ঠানগুলো হলো কসমিক ফার্মা লিমিটেড, নাফিউ ফার্মাসিউটিক্যালস, দেশ ফার্মা লিমিটেড, জেনিয়াল ইউনানি ল্যাবরেটরিজ, নভো হেলথকেয়ার অ্যান্ড ফার্মা, মাহি এন্টারপ্রাইজ, আগারগেইট অ্যাপলিয়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড, ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস, সিস কম্পিউটার্স লিমিটেড ও ইউএসবি এক্সপ্রেস কুরিয়ার।
এ বিষয়ে কমিশনার জানান, গত ৩১ জানুয়ারি রাত ২টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা পশ্চিমের একটি দল মিরপুর ১১ থেকে একটি ট্রাক (নং ঢাকা মেট্রো-ম-১৩-১০২৯) আটক করে। প্রাথমিকভাবে দেখা যায়, ওই ভ্যানে পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের ওষুধ ও অন্যান্য পণ্য কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পরিবহন করা হচ্ছে। এসব পণ্যের সপক্ষে কোনো বৈধ ভ্যাট চালান ইস্যু করা হয়নি। পরের দিন পয়লা ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা হয়। গতকাল ন্যায় নির্ণয়নের মাধ্যমে বিভিন্ন হারে জরিমানাসহ ফাঁকিকৃত ভ্যাট আদায় করা হয়। আটক পণ্যের মোট মূল্য ৩৪ লাখ টাকা। আদায়কৃত ভ্যাটের পরিমাণ তিন লাখ ৭৬ হাজার টাকা ও জরিমানা পাঁচ লাখ ৯ হাজার টাকা। ভ্যাটসহ আহরণকৃত জরিমানার পরিমাণ আট লাখ ৮৫ হাজার টাকা। আরোপিত জরিমানা ও প্রযোজ্য ভ্যাট পরিশোধের পর পণ্য ও ট্রাক ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সর্বশেষ..



/* ]]> */