মল্লিকের বেফাঁস মন্তব্যে তোলপাড়

ক্রীড়া প্রতিবেদক: বাংলাদেশের ক্রিকেটকে নতুন যুগে পৌঁছে দিতে সাংবাদিকদের অবদান কম নয়। কিন্তু সেই সাংবাদিকদের মধ্যে প্রশ্নকারী কোনো একজনকে পাগল বলে সম্বোধন করলেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) সদস্যসচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক। ঘটনার সূত্রপাত মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের উইকেট নিয়ে। বিপিএলের পর পর তিনটি আসরে কিউরেটর গামিনি সিলভা যেখানে উপহার দিতে পারেননি টি-টোয়েন্টির আদর্শ উইকেট! সর্বনিম্ন আটটি স্কোরের আটটিই এ ভেন্যুতে দেখেছে দর্শক। তাই তো কিউরেটরের সামর্থ্য নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। কিন্তু বিস্ময়কর হলেও সত্য, কিউরেটরের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন মল্লিক।

উইকেট নিয়ে প্রশ্নকারী এক সাংবাদিককে পাগল সম্বোধন করতেও দ্বিধা করেননি বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যসচিব মল্লিক, ‘আপনি যদি বুঝতে না চান, পাগলকে তো আমি বুঝাইতে পারব না। আমি উত্তর পরিষ্কার করে দিয়েছি। এই উইকেটে বাংলাদেশ দল ম্যাচ জিতেছে। এখন এখানে একই উইকেটে ২০৫ রানও হয়েছে আবার আরেকটা  ম্যাচে ৯৭ রানও হয়েছে।’

পরে অবশ্য তিনি এ বক্তব্য প্রকাশ না করতে অনুরোধ করেন। দেশের কয়েকটি ক্লাবের লোগো লাগিয়ে ক্রমেই বিসিবিতে আধিপত্য বিস্তার করে চলেছেন। বোর্ড সভাপতির ব্যক্তিগত সচিব থেকে তিনি এখন বিসিবির ডিরেক্টর পদে। তার এমন আচরণে তোলপাড় ক্রিকেটাঙ্গন। বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে এ নিয়ে লেখালেখি হচ্ছে। অল্প বয়সে প্রচণ্ড ক্ষমতার ভারে মল্লিকের হোঁচট খাওয়াটা অস্বাভাবিক নয় বলেই মনে করছে ক্রিকেট সাংবাদিকরা।

অবশ্য মল্লিকের এমন কাণ্ড এবারই প্রথম নয়। এর আগের বিপিএলেও সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি। সেবার পুলিশকে লাঞ্ছিত করেছিলেন। তবে বিসিবির গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকায় ওপর মহলের ‘আশীর্বাদে’ তখন পার পেয়েছিলেন। এবারও তেমন কিছু হলে অবাক হওয়ার থাকবে না!